পাবনায় টানা ৫ ঘন্টার অভিযান, ২ টি গোখরা, ৯২ টি ডিম ও খোসা উদ্ধার

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনা সদর উপজেলার মনোহরপুর বড়ব্রীজ সংলগ্ন খালপাড়ের বিল্লাল হোসেনের বাড়ীতে ওঁঝা কবিবরাজের একটি টিম টানা ৫ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে ২ টি বিষধর গোখরা সাপ, ৩ তাওয়ায় ৯২ টি ডিম ও বেশ কয়েকটি সাপের খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার রাত ৯ টা থেকে দিবাগত রাত ২ টা পর্যন্ত এই অভিযান চালানো হয়।
স্থানীয় বাসিন্দা জুয়েল আহমেদ জানান, বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী সাগরিকা শনিবার সন্ধ্যায় নিজ ঘরে কাজ করার সময়ে মেঝোতে একটি গর্ত থেকে বিষধর সাপ মাথা বের করে নাড়াচাড়া করে।
এটা দেখে ভয়ে সাগরিকা বের হয়ে এসে চিৎকার শুরু করে। স্থানীয়রা দ্রুত ওই ঘরে গিয়ে সাপের অস্তিত্ব দেখতে পেয়ে ওঁঝা কবিরাজকে খবর দেয়া হয়।
খবর পেয়ে পাশ্ববর্তী কাশিনাথপুর থেকে সাপ ধরা ওঁঝা কবিরাজ বিল্লাল হোসেনের বাড়িতে আসে। এখানে এসে তারা রাত ৯ টা থেকে ঘরের মেঝো থেকে মাটি সড়িয়ে সাপের সন্ধান শুরু করে। টানা ৫ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে অবশেষে ২ টি বিষধর গোখরা সাপ, বেশ কয়েকটি সাপের খোসা ও তিন তাওয়ায় ৯২ টি ডিম উদ্ধার করা হয়।
পাবনা সদরের বয়রা কাশিনাথপুরের ওঁঝা কবিরাজ সৈয়দ আলী বলেন, ২ টি বিষধর সাপের মধ্যে একটি পদ্ম গোখরা আরেকটি কাল গোখরা। দুটোই বিষধর সাপ। এই সাপ দুটো ধরতে খুব বেগ পেতে হয়েছে। কবিরাজ সৈয়দ আলী আরও বলেন, সাপ দুটো মাটির পাত্রে করে সংরক্ষণ করা হয়েছে। আর ডিমগুলো মাটির নীচে পুতে ধ্বংস করা হয়। তার ধারণা আরও কয়েকটি বিষধর সাপ ওই বাড়িতে আছে। কয়েকদিনের মধ্যে আবার সাপ ধরতে অভিযান চালানো হবে।
স্থানীয় বাসিন্দা আইয়ুব আলী বলেন, তিনটি তাওয়া রয়েছে। সাপ ধরা পড়ছে দুইটি। আরও একটি সাপ রয়েছে। একটি সাপ মেঝোতে আরেকটি ধরা পড়ছে ফ্রিজের নীচ থেকে।
বাড়ির মালিক বিল্লাল হোসেন বলেন, খুব ভয় আর সঙ্কার মধ্যে বসবাস করছি। আজ (রোববার) ওই ঘরে সাপ দেখা গেছে বলে তিনি বাড়ির অন্যদের মুখে শুনেছেন।
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *