পাবনায় পাঁচটি আসনে ১৯ প্রার্থীর জামানত বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পাবনার ৫টি সংসদীয় আসনের নির্বাচনে ভোট গণনা শেষে প্রাপ্ত ভোটে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ১৯ জন প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করেছেন। প্রাপ্ত মোট ভোটের শতকরা ৮ ভাগ না পাওয়ায় এসব প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত করা জয়।

পাবনায় আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পাটি, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি, গণতন্ত্রী পার্টি, গণফোরাম ও স্বতন্ত্র মিলে ২৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়ার আংশিক) আসনে ৭ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তারা হলেন; ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে ধানের শীষের প্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদ পেয়েছেন ১৬ হাজার ৪ ভোট। যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর পুত্র মোঃ নাজিবুর রহমান স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আপেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৪৫। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ আব্দুল মতিন হাতপাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৩৮৮। বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পাটির মোঃ জুলহাস নাঈন কোদাল প্রতীক নিয়ে ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৪। বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মোঃ শরিফুর ইসলাম ফুলের মালা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৭৪২। ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোঃ শাখাওয়াত হোসেন আম প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৫২৪। জাতীয় পার্টির সরদার শাহজাহান লাঙল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ১৩৩।

পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়ার আংশিক) আসনে ৩ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তারা হলেন; বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি’র) প্রার্থী একেএম সেলিম রেজা হাবিব ধানের শীষ প্রতীকে ভোট পেয়েছে ৫ হাজার ৩৮৩। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ ইউনুস আলী হাতপাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৮৪২। বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মোঃ শামসুর রহমান ফুলের মালা প্রতীকে ভোট পেয়েছে ৯৭৫।

পাবনা-৩ (চাটমোহর-ভাঙ্গুড়া ও ফরিদপুর) আসনে ৩ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তারা হলেন; স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ হাসানুল ইসলাম রাজা সিংহ প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৬ হাজার ১৪। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ আব্দুল মোত্তালিব হাতপাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১২১৩ ভোট। আর গণতন্ত্রী পার্টির খায়রুল আলম কবুতর প্রতিকে পেয়েছেন ৩৬৮।

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনে ২ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তারা হলেন; ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা আব্দুল জলিল হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৯৮৪। ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোঃ আব্দুর রশিদ শেখ আম প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৮৩৬।

পাবনা-৫ (সদর) আসনে ৪ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তারা হলেন; ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী অধ্যক্ষ ইকবাল হুসাইন (ধানের শীষ) পেয়েছেন ২০ হাজার ৬৩৬ ভোট। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের অধ্যাপক মোহাম্মদ আরিফ বিল্লাহ হাতপাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২ হাজার ৬১৮। ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোঃ আবু দাউদ আম প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৯৯৯। জাতীয় পার্টির আব্দুল কাদের খান কদর লাঙল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২ হাজার ৫৮৪ ভোট।

জেলা রিটার্নিং অফিসার জসিম উদ্দিন পাবনার ৫টি সংসদীয় আসনের ১৯ প্রার্থীর জামানত বাতিলের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *