পাবনায় বখাটেদের হামলায় দুই ছাত্রীসহ ৫ আলিম পরীক্ষার্থী আহত ; আটক-১

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার ফরিদপুরে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে বখাটেদের হামলায় আহত হয়েছেন দুই ছাত্রীসহ ৫ জন আলিম পরীক্ষার্থী। গুরুতর আহত ৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ মে) দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে খায়রুল ইসলাম (১৮) নামের এক বখাটেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী। আটক খায়রুল উপজেলার নেছরাপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

আহত শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, উপজেলার বনওয়ারী নগর আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছেন দীঘুলিয়া ডি এ এস এস আলিম মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। সম্প্রতি একটি পরীক্ষা চলাকালে খাতা না দেখানোর কারণে মাদারজানি গ্রামের সৈয়দ প্রামানিকের ছেলে মানিক হোসেন (২০) নামের এক বখাটে পরীক্ষার্থী ওই মাদ্রাসার ছাত্রীসহ কয়েকজন পরীক্ষার্থীকে দেখে নেয়ার হুমকী দেয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে ফরিদপুর মাইক্রোস্ট্যান্ডের কাছে বখাটে মানিক তার কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে ওই পরীক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় গাড়ি থেকে নামিয়ে তাদের মারধর করে বখাটেরা। হামলায় ২ ছাত্রীসহ ৫ জন আহত হয়। এ সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা।

পরে খায়রুল ইসলাম নামের এক বখাটেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী। আহতদের মধ্যে ৩ জনকে ফরিদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন-আহসান আলী, ইব্রাহিম হোসেন, গোলাম রাব্বি, কুলসুম খাতুন ও সাদিয়া খাতুন।

ফরিদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কাশেম আজাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে। এ ঘটনায় খায়রুল নামের একজন আটক করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *