পাবনায় বাড়ির মালিক ভাড়াটিয়ার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ; না দেওয়ায়  ভাংচুর ও মারধর 

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনা পৌর এলাকার মাসুম বাজারের  বাংলা ক্লিনিকের তয় তলায়  মালিক ভাড়াটিয়ার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি না দেওয়ায় ভাংচুর ও মহিলাদের মারধর  ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রবিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
বাসার ভাড়াটিয়া আলিমুল রেজা সেতু জানান,আমি দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলা ক্লিনিকের তয়তলায় আমার পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছি।  বাসার মালিক মৃত ইউনুছ আলীর ছেলে আলহাজ্ব রেজাউল করিম ফোন করে আমার কাছে অনৈতিক ভাবে ২০ লক্ষ টাকার চাঁদা দাবি করে। এবং আমাকে বিভিন্ন ভাষায় গালি গালাজ করে হুমকি দেয়। ফোনে কথা বলা শেষ হলে আমি কলটি কেটে দেয়।
হঠাৎ একই দিন রাতে বাসার মালিক রেজাউল করিম সহ ১৫-১৬ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশিয় অস্ত্র নিয়ে আমার বাসার দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে বাসার আসবাবপত্র ভাংচুর করে । একই সাথে আমার স্ত্রী ও শ্বশুড়ীকে মারধর করে মোবাইল ও গলা পড়ে থাকা স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় তারা বাসার বৈদুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।
এ ব্যাপারে সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা  আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। রাতেই  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বাসাটিতে দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে কিছু আসবাবপত্র ভাংচুর ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ বা মামলা পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *