পাবনায় বিসিক প্রদত্ত ঋণদান কর্মসূচির আওতায় ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র ব্যসায়ীদের মাঝে চেক বিতরণ  

জেলা প্রতিনিধি, পাবনা : বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) পাবনা অঞ্চলের করোনাকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র ব্যসায়ীদের মাঝে (বিসিক) প্রদত্ত আর্থিক প্রণোদনার চেক বিতরণ করা হয়। (০২ মে) সোমবার দুপুরে পাবনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সভাকক্ষে প্রথম পর্যায়ে জেলার ১৮ জন ক্ষতিগ্রস্ত বস্ত্রজাত, খাদ্যজাত ও ক্ষুদ্র মৎস্য বসায়ীদের মাঝে বিভিন্ন পরিমানে প্রায় ৫০ লক্ষ টাকার আর্থিক চেক বিতরণ করা হয়। এসময় ঋণপ্রাপ্তি ব্যবসায়ীদের হাতে চেক তুলেদেন পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহামুদ ও বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) পাবনা এর উপ-মহাব্যবস্থাপক মোঃ রফিকুল ইসলাম।
এসময় জেলা প্রশাসক বিসিক প্রদত্ত সরকারের ঋণদান কর্মসূচির সুভিধাভোগী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদরে সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম ও সকল শ্রেনী পেশার মানুষদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সরকার। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে। সরকার এই করোনাকালীন মহামারিতে তার উন্নয়ন কর্মকান্ড থামিয়ে রাখেনি। সাময়িক সমস্যা হলেও অর্থনৈতিক ভাবে দেশেকে এগিয়ে নেয়ার জন্য আপ্রান চেষ্টা করছে তিনি। আমরা সকলেই সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে কথা তুলে ধরবো সাধারন মানুষের কাছে।
চেক প্রদান অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, পাবনা জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জাহিদ নেওয়াজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আফরোজা খাতুন, বিসিক পাবনা অফিসের হিসাব কর্মকর্তা এবিএম আনিসুজ্জামান ও অফিস সহকারি মোঃ মোস্তফা কামাল প্রমুখ।
সারা বাংলাদেশের বিসিক শিল্প করপোরেশন ৬৪ জেলাতে একশো কোটি টাকা সরকারি ভাবে বরাদ্দ পেয়েছেন। এরই আলোকে পাবনা (বিসিক) শিল্পসহায়ক হিসাবে এই অঞ্চলের বরাদ্দকৃত অর্থদিয়ে ১৮ জন ক্ষতিগ্রস্থ্য ক্ষুদ্র বিভিন্ন পেশার ব্যবসায়ীদের এই ঋণ প্রদান করেন। ঋণ প্রাপ্তি  ১৮ জনের মধ্যে ৪ জন নারী ও ১৪ জন পুরুষ ব্যবসায়ী রয়েছেন। ঋণ প্রাপ্তিদের মধ্যে ১১ জন বস্ত্রজাত, ৩ জন খাদ্যজাত, ২ জন মৎস্যজাত ও ২ জন ইলেকট্রনিক্স মালামাল তৈরি ও বাজারজাত করন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রয়েছেন। এই  ব্যবসায়ীদের ধরন ও ক্ষতির পরিমান বিবেচনা করে সর্বচ্চ ৫ লক্ষটাকা ও সর্বনিন্ম ১ লক্ষ টাকা ৪% সল্প সুদে এই ঋণ প্রদান করা হয়। এই ঋণের অর্থ সঠিক ব্যববহার ও পরিশোধ করতে পারলে পরবর্তীতে বিসিক তাদের আরো বেশি অর্থ ঋণের জন্য সুপারিশ করবে বলে জানান বিসিক কর্তৃপক্ষ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *