পাবনায় বেড়েছে শীতের তীব্রতা: হাসপাতালে শীতজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব

মিজান তানজিল, পাবনা: উত্তরের জনপথ পাবনায় ঘন কুয়াশা আর হিমেল বাতাসে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। আর এতে স্থবির হয়ে পরেছে সাধারন মানুষের জনজীবন। বেকায়দায় পরেছে নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষ গুলো। শীতকে উপেক্ষা করেই জীবিকার জন্য বের হচ্ছে তারা। মধ্যরাত থেকে প্রকৃতি ঢাকা থাকছে ঘন কুয়াশায়।কয়েকদিন ধরে মাঝে মধ্যে দেখা মিলছে সূর্য্যের। এদিকে ঘন কুয়াশার কারনে দুরপাল্লার গাড়িগুলোকে চলতে হচ্ছে হেডলাইট জ্বালিয়ে ধীর গতিতে।

অন্যদিকে খরে আগুন জ্বালিয়ে নিজেদের শরীরে একটু উষ্ণতা নিচ্ছে অনেকেইে। তবে এই শীতে শীতার্ত মানুষের পাশে রয়েছে সরকারি কর্মকর্তাগণ সহ বিভিন্ন বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানও।

এ বিষয় জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ জানান, উত্তরের জনপথ পাবনায় গত কয়েকদিন ধরে বেশ শীত পরেছে। এতে নিম্ন আয়ের মানুষগুলো পড়েছে বিপদে। তাদের বিপদ কাটাতে সরকারের পক্ষ থেকে আমরা তৃর্ণমূল পর্যায়ে গিয়ে দারে দারে গরম কাপড় বিতরণ করছি। এবং এটা অব্যাহতও রয়েছে।

এদিকে প্রচন্ড শীতের মধ্যে জুবুথুবু হয়ে পরেছে শিশু, বৃদ্ধ ও পশু পাখি। সেই সাথে হাসপাতালে বাড়ছে শীতজনিত রোগির সংখ্যা।

এ ব্যাপারে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক রঞ্জন কুমার দত্ত বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ১৫ জন ডায়রিয়া রোগী, সর্দি-কাশি জনিত ১৩ জন ভর্তি হয়েছে। তাছাড়া ডায়ারিয়া ও নিউমোনিয়াসহ শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়ে আছে শতাধিক নারী-পুরুষ ও শিশু।

তিনি বলেন, চিকিৎসকের তুলনায় রোগী বেশী ভর্তি হওয়া চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস জানায়, কয়েক দিন ধরে তাপমাত্রা ১০ দশমিক থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *