পাবনা জেলা যুবলীগের বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত

পাবনা প্রতিনিধি: ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ পাবনা জেলা শাখার বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ  ৩০ সেপ্টেম্বর (বৃহঃবার) সকাল সারে ১১ টায় সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের শহীদ আব্দুস ছাত্তার মিলনায়োতনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রিয় যুবলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক বিশ্বাস মতিউর রহমান বাদশা।
প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক  ডা. হেলাল উদ্দীনসহ কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেত্রীবৃন্দ, জেলা ও উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই আমন্ত্রীত অতিথিদের সাথে নিয়ে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্যদিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তলন করেন দলের নেতাকর্মীরা। পরে সভাকক্ষে আলোচনা সভার পূর্বে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদ ও দলের জন্য যারা প্রাণ দিয়েছেন সকলে প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে একমিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
পরে দলের আমন্ত্রীত অতিথি কেন্দ্রীয় নেতাদের ফুলের শুভেচ্ছা দেয়া হয়। দিনব্যাপী এই বর্ধিত সভা পরিচালনা করনে জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক শিবলী সাদিক। জেলা ও  উপজেলার থেকে দলের দায়িত্বরত প্রায় ৫ হাজার নেতাকর্মী এই বর্ধিত সভায় অংশ গ্রহণ করেন। বিকেল ৪ টা পর্যন্ত চলে আলোচনা সভা। প্রথম পর্বের আলোচনা সভা শেষে বিকেলে দ্বিতীয় পর্বের কার্যক্রম শুরু হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, দলের উপ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ দেরোয়ার হোসেন শাহাজাহান, সহসম্পাদক মোঃ আবু রায়হান রুবেল, মোঃ মনিরেুজ্জান পিন্টু, কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ ইব্রাহিম হোসেন মুন, আসিফ সামস রঞ্জন, মোঃ শাহিনুর  রশিদ সোহেল, মোঃ কামরুল হাসান, মোঃ আলহাজ্ব হুসাইন জয়, মোঃ ফারহান ফাইম প্রমুখ।
বর্ধিত সভার প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আগামী দিনের সুন্দর সমৃদ্ধ উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। তার সাহসী ও বুদ্ধিমত্তার জন্য বাংলাদেশ আজ বিশে^র কাছে পরিচিত নাম। তাইতো তিনি জননেত্রী থেকে আজ বিশ^ নেত্রী হয়েছেন। বর্তমান যুবলীগ অনেক সংগঠিত ও শক্তিশালী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনা ও যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস ও সাধারন সম্পাদক মাঈনুল হোসেন পরামর্শে পথ চলছে। আগামী ২৩ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারা বাংলাদেশেরমত পাবনা জেলাকেও সুসংগঠিত করার লক্ষে এই বর্ধিত সভার আয়োজন। জেলার প্রতিটি উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড সকল স্থানে কমিটি গঠন করতে হবে। ষড়যন্ত্রকারীরা যাতে কোন ধরনের সুযোগ না পায়। সরকারের পাশাপাশি এই যুবলীগ করোনাকালীন সময়ে দেশের অসহায় মানুষের পাশে থেকেছেন। তাদের সাহায্য সহযোগিতা করেছেন। তাই সাধারন মানুষের সাথে থেকে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। দলের কাজ করতে হবে দেশের কাজ করতে হবে। আগামী নির্বাচনে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। তার জন্য তৃণমূল পর্যায়ে যুবলীগকে আরো বেশি শক্তিশালী হওয়ার আহবান জানান।
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *