পাবনা মানসিক হাসপাতালের পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনা মানসিক হাসপাতালের (পামাহা) সাবেক পরিচালক ও চিকিৎসক তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাসসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ছয়টি মামলা করা হয়েছে। বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে পাবনা দুদক কার্যালয়ে মামলাগুলো নথিভূক্ত করা হয়।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত পাবনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহীদুল আলম সরকার বাদী হয়ে ৮৮ লাখ ৩ হাজার ৭৬২ টাকা টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে এই মামলাগুলো করেন।

মামলার অন্য আসামীরা হলেন, জেলার সাবেক বিপণন কর্মকর্তা (বর্তমানে কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের দিনাজপুর কার্যালয়ে কর্মরত) হুমায়ুন কবীর, হাসপাতালের খাদ্য সরবরাহ ঠিকাদার এইচ এম ফয়সাল, এইচ এম রেজাউল ও এইচ এম আরফিন। এ তিন ঠিকাদার সম্পর্কে ভাই। তাঁদের বাড়ি পাবনা জেলা শহরে।

দুদকের পাবনা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ঠিকাদারেরা ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে যোগসাজশ করে হাসপাতালের পথ্য খাতে প্রকৃত বাজার মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্য দেখিয়ে সরকারের আর্থিক ক্ষতিসাধন করে ৮৮ লাখ ৩ হাজার ৭৬২ টাকা আত্মসাৎ করেন। এ বিষয়ে দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে মামলা করা হয়েছে।

জানতে চাইলে মামলার বাদী ও দুদকের পাবনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহীদুল আলম সরকার বলেন, ২০১৯ সালের শেষের দিকে অভিযোগ পাওয়া যায়। দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা মেলায় মামলাগুলো করা হয়েছে। মামলার তদন্ত করবে দুদক নিজেই করবে।

এ বিষয়ে পাবনা মানসিক হাসপাতালের সাবেক পরিচালক চিকিৎসক তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাসের সাথে কথা বলার জন্য তার মুঠোফোনে (০১৭১১২৬১৮৯৭) একাধিকবার কল করা হলেও বন্ধ পাওয়া গেছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *