পাবনা সদর পৌরসভা নির্বাচনে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশ হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের ফলাফল স্থগিত করে এক মাসের মধ্যে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার (১০ ফেব্রæয়ারি) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হাসান হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শাহদীন মালিক ও নাহিদ সুলতানা যুথি। রিটের পক্ষের আইনজীবীরা বলেন, পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) শরীফ উদ্দিন প্রধানকে ১২২ ভোটে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। অথচ বিভিন্ন কেন্দ্রে এক হাজার ২০০ এর মতো ভোট বাতিল এই নির্বাচনে বাতিল হয়েছে। এছাড়া ভোট গণনায় বিভিন্ন অসঙ্গতি পাওয়ায় মেয়র পদের ফলাফল বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি। রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের ফলাফল স্থগিত করে পুনরায় গণনার নির্দেশ দেন।
গত ৩০ জানুয়ারি পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) শরীফ উদ্দিন প্রধান বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হন। পাবনা সদর উপজেলা কার্যালয়ে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা সকর প্রশাসনিক কর্মকর্তার সম্মুখে জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মাহবুবুর রহমান বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। ঘোষিত বেসরকারি ফলাফলে জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি, স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী শরীফ উদ্দিন প্রধান ২৭ হাজার ৯৬৯ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি পেয়েছেন ২৭ হাজার ৮৪৭ ভোট। এছাড়াও এই নির্বাচনে মেয়র পদে ধানের শীষের প্রার্থী নুর মোহাম্মদ মাসুম বগা পেয়েছেন ৭ হাজার ৫০৪ ভোট, জাতীয় পার্টির প্রার্থী চৌধুরী মোহাম্মদ মাহাবুবুল হক রাজন পেয়েছেন ২৭৬ ভোট ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক পেয়েছেন ১৬৫৯ ভোট।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *