পাবনা সুগার মিল চালুর দাবিতে বিক্ষোভ

পিপ (পাবনা) : পাবনার অন্যতম ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান পাবনা সুগার মিলস্ বন্ধের প্রতিবাদ ও চলতি মৌশুমের আখমাড়াই কার্যক্রম চালুর একদফা দাবিতে আবোরো মাঠে নেমেছে জেলার আখচাষী ও শ্রমিক কর্মচারীরা।

শনিবার সকাল থেকে পাবনা ঈশ^রদীর সুগার মিলের সামনে আগুন জ¦ালিয়ে বিক্ষোভ করে শ্রমিক কর্মচারীরা। এসময় আন্দোলনকারীরা মিছিল নিয়ে পাবনা ঈশ^রদী মহাসড়কের অবস্থান নিলে পুলিশ তাদের সরিয়ে দেয়। এসময় কিছু সময়ের জন্য যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে আন্দোলনকারীরা চিনিকলের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয়।

আন্দোলনকারীরা বলেন, পাবনা চিনিকল দেশের সবকটি চিনিকলের মধ্যে সবচাইতে আধুনিক এবং নতুন প্রুযুক্তি সম্পর্ন। এই চিনি কলের কার্যক্ষমতা গুন অনেক বেশি। দেশের অন্য সবকটি চিনি কলের চাইতে এই চিনি কলে আখ মাড়াই সবচাইতে ভালো হয়। আসছে ২৫ ডিসেম্বর প্রতিবছর পাবনা চিনি কলে আখ মাড়াই কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু সরকারের আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত ও বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের গুটি কয়েক আমলা ও পরিচালকের ষড়যন্ত্রের কারনে এই চিনিকল বন্ধ করা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তাই চলতি মৌশুমের আখ মাড়াই শেষে শ্রমিক কর্মচারীদের সাথে বৈঠক করে একটি সিন্ধান্ত গ্রহণ করলে চাষীসহ শ্রমকি কর্মচারীরা ক্ষতির হাত থেকে বেঁচে যাবে বলে মনে করছেন তারা। তাই আত্মঘাতি সিন্ধান্ত পরিবর্তন করে বন্ধ সকল চিনিলের আখ মাড়াই কার্যক্রম চালুর দাবিতে জানান তারা।

শ্রমিক নেতারা আরো জানান, সংম্লিষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের শ্রমকি কর্মচারিদের ইতমধ্যে দেশের বিভিন্ন চিনিকলে স্থান্ত করে এই আন্দোলন বন্ধের জন্য চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে। তাই সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন আন্দোলন কারীরা। পাবনা চিনিকলে আখচাষী রয়েছে সারে ৬ হাজার আর শ্রমিক কর্মচারী রয়েছে সারে ৬ শো। পাবনা অঞ্চলের উৎপাদিক আখ অন্য সুগার মিলে না দেয়ার সিন্ধান্ত জানান আন্দোলনকারীরা।

সকাল ৯ থেকে বিক্ষোভ আন্দোলন শুরু হয়ে চলে দুপুর সারে ১২ টা পর্যন্ত। আগামীকাল সকাল ৯ টায় আবারো বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষনাদেন তারা। দাবি আদাই করা লক্ষে প্রতিষ্ঠানের মাটি স্পর্শ করে শফত করে তারা। গত নভেম্বর মাসের শুরু থেকে ধারাবাহিক ভাবে এই আন্দোলন করে আসছেন প্রতিষ্ঠানের সাথে সংশ্লিষ্ঠ শ্রমিক কর্মচারীরা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *