পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসন শূন্য ঘোষণা : মাঠে এক ডজন প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাবনা জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক ভূমিমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা শামসুর রহমান শরিফ ডিলু এমপি‘র মৃত্যু জনিত কারণে পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনটিকে শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দুপুর ১২ টায় জাতীয় সংসদের জৈষ্ঠ সচিব ড. জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিক এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

এদিকে ডিলু এমপির মৃত্যুর পর শূন্য আসনটিতে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মাঠে কাজ শুরু করেছেন প্রায় অর্ধডজন আওয়ামীলীগ নেতা।
বর্তমানে দেশে করোনা ভাইরাসের মহামারি মোকাবেলাতে প্রধানমন্ত্রীর আহবানে ইতোমধ্যে এই আসনের বিভিন্ন এলাকায় খাদ্য সামগ্রি বিতরণের মাধ্যমে অঘোষিত প্রচার প্রচারণা করতে দেখা যাচ্ছে। এ ছাড়া ধর্মীয় বিভিন্ন সভা সমাবেশ, সেবামুলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি ছাড়াও ডিজিএফআইয়ের সাবেক প্রধান মেজর জেনারেল (অব.) মো. নজরুল ইসলাম, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম বুদু সরদার, আইনজীবি সৈয়দ আলী জিরু, সাবেক এমপি পাঞ্জাব আলী বিশ্বাস, ডিলু পরিবারের সদস্য তার দুই ছেলে কনক শরীফ এবং গালিবুর শরীফ মেয়ে পিয়া মেয়ের জামাই ঈশ্বরদী পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, ডিলুর স্ত্রী কামরুন্নাহার শরীফ প্রমুখসহ ডজন খানেক নেতা মাঠে কাজ করছেন।

তবে মৃত ডিলু এমপির পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর ছেলে আওয়ামীলীগ নেতা গালিবুর রহমান শরিফকে মনোনয়ন দেওয়া জন্য দলের কেন্দ্রিয় নীতি নির্ধারকদের অনুরোধ করা হবে বলে জানা গেছে। এ ছাড়া সদ্য আওয়ামীলীগে ফেরা পাবনা পৌরসভার মেয়র কামরুল হাসান মিন্টুর নামও শোনা যাচ্ছে।

বিএনপি থেকে সাবেক ছাত্রনেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, পাবনা জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলঅম সরদার।
জাতীয় পাটির সাবেক এমপি মঞ্জুর রহমান বিশ্বাস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন।

স্থানীয় আওয়ামীলীগের কয়েকজন নেতা কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নেতাদের উদ্বৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, দেশে চলমান করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এখনই হয়তো নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব হবে না। তবে বিভিন্ন লাইনে মনোনয়ন দৌড়ে ঈশ্বরদী-আটঘরিয়াতে কিছু নেতার নড়াচড়া দৃষ্টিগোচর হচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *