পূর্ব চীন সাগরের আকাশে রাশিয়া ও চীনের যৌথ বিমান মহড়া

ডেস্ক: জাপান সাগর ও পূর্ব চীন সাগরের আকাশে কৌশলগত বোমারু বিমান দিয়ে মহড়া চালিয়েছে রাশিয়া ও চীন। গত এক বছরের মধ্যে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দ্বিতীয়বার এ ধরনের মহড়া অনুষ্ঠিত হলো।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার জানিয়েছে, রাশিয়ার দু’টি টিইউ-৯৫এমএস এবং চীনের চারটি এইচ-৬কে কৌশলগত বোমারু বিমান এই যৌথ মহড়ায় অংশ নিয়েছে। মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, রাশিয়ার অ্যারোস্পেস ফোর্স এবং চীনা পিপলস লিবারেশন আর্মির বিমান বাহিনী এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দূরপাল্লার বিমান দিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো যৌথ মহড়া চালিয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরো বলেছে, দু’দেশের মধ্যকার সামরিক সহযোগিতা চুক্তি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে এ মহড়া চালানো হয়েছে এবং ‘তৃতীয় কোনো দেশকে টার্গেট করে’ এ মহড়া চালানো হয়নি। এছাড়া, এতে আন্তর্জাতিক আইনও কঠোরভাবে মেনে চলা হয়েছে। রাশিয়া ও চীনের সামরিক বিমান দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমায় ঢুকে পড়েছে বলে সিউল প্রতিবাদ জানানোর পর রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ বিবৃতি দিল। দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনী জানিয়েছে, চীন তাদেরকে বলেছে, একটি চীনা সামরিক বিমান নিয়মিত উড্ডয়নে অংশ নিতে গিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার আকাশসীমায় ঢুকে পড়েছিল।

দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ এক বিবৃতিতে বলেছেন, মনে হচ্ছে চীন ও রাশিয়া যৌথ সামরিক মহড়া চালিয়েছে, তবে বিষয়টি আরো খতিয়ে দেখতে হবে। দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা ইউনহ্যাপ জানিয়েছে, এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তির ব্যাপারে বেইজিং ও মস্কোকে সতর্ক করে দিয়েছে সিউল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *