প্রচন্ড গরমে জনজীবনে স্থবিরতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা : কয়েকদিনের তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে পাবনার জনজীবন। ভ্যাপসা গরমে মানুষের প্রাণ প্রায় ওষ্টাগত। ঘরে বাইরে কোথাও স্বস্তি নাই। সবচেয়ে কাবু হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ। তীব্র গরম আর অসহনীয় তাপমাত্রার কারণে রাস্তায় চলাচল অনেকটা কমে গেছে। কর্মজীবী মানুষ ঘরের বাইরে বের হলেই ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন। কর্মজীবী মানুষ ঘরের বাইরে বের হলেই অতিরিক্ত ঘামে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন। ক্লান্তি দূর করতে খোলাস্থানে গাছের ছায়ায় বসে সময় কাটাচ্ছেন।
প্রচন্ড গরম সইতে না পেরে আবার অসুস্থ্যও হয়ে পড়ছেন কেউ কেউ। গরমের সাথে যোগ হয়েছে ডায়রিয়া।
এ ক্ষেত্রে শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে বেশি। প্রতিদিনই হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা।
ঈশ্বরদীতে আজ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

জানা গেছে, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ দেখা দেয়ায়, শিগগিরই বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এদিকে, বিশ্লেষকরা বলছেন জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই তাপমাত্রা বাড়ছে।
আবহাওয়াবিদ অধিদপ্তর জানিয়েছে, শিগগিরই বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, তাতে গরম কিছুটা কমবে।

তবে, চলতি মৌসুমে একাধিক তাপপ্রবাহের আশঙ্কা রয়েছে বলে জানান আবহাওয়াবিদরা। তীব্র তাপদাহের কারণ হিসেবে বিশ্লেষকরা জলবায়ু পরিবর্তনকেই দায়ী করছেন।

সাধারণত ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে তাপমাত্রা থাকলে সেটিকে মৃদু তাপপ্রবাহ, ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে থাকলে সেটিকে মাঝারি এবং ৪০ ডিগ্রির বেশি হলে সেটিকে তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়। সেই হিসেবে বর্তমানে দেশে মৃদু ও মাঝারি তাপমাত্রা বিরাজ করছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *