প্রথম আর্টেমিস মিশনে কী পাঠাচ্ছে নাসা?

আইটি: এ মাসেই চাঁদের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করতে পারে নাসার আর্টেমিস প্রকল্পের প্রথম মিশন ‘আর্টেমিস ওয়ান’। তবে, মানুষকে চাঁদে ফেরানোর এই প্রকল্পের প্রথম মিশনে থাকবেন না কোনো নভোচারী; থাকবে লেগো, ম্যানিকিন বা মানবদেহের আদলে বানানো পুতুল আর গার্ল স্কাউটের ব্যাজ। চাঁদ ঘিরে চক্কর দেওয়ার কথা রয়েছে আর্টেমিস ওয়ানের। প্রযুক্তি বিষয়ক সাইট সিনেট জানিয়েছে, সবকিছু পরিকল্পনা মত এগোলে, আর আবহাওয়া ঠিক থাকলে ২৯ অগাস্টেই মহাকাশের পথে যাত্রা করবে আর্টেমিস ওয়ানের ওরিয়ন স্পেসক্র্যাফট। স¤প্রতি মিশনের ‘অফিশিয়াল ফ্লাইট কিট’ প্রকাশ করেছে নাসা। আর্টেমিস ওয়ানের কার্গো হিসেবে কী কী মহাকাশে পাঠানো হচ্ছে তার তালিকা আছে ফ্লাইট কিটে। সাংস্কৃতিক এবং শিক্ষাগমূলক গুরুত্ব আছে এমন ছোটখাটো নানা জিনিস পাঠানো হচ্ছে আর্টেমেসি ওয়ান মিশনে। এক বিবৃতিতে নাসা বলেছে, “ফ্লাইট কিটে যোগ করা নানা জিনিস নাসার সঙ্গে স্টেম (সায়েন্স, টেকনোলজি, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যাথমেটিক্স) সংস্থাগুলোর সম্মিলিত প্রচেষ্টার সাংস্কৃতিক গুরুত্ব বহন করছে।” সাংস্কৃতিক আর শিক্ষামূলক জিনিসপত্রের ‘টাইম ক্যাপসুলে’ গার্ল স্কাউটের স্পেস সায়েন্স ব্যাজের একটি সেটও আছে বলে জানিয়েছে সিনেট। ফ্লাইট কিটের তথ্য অনুযায়ী, ১২০ পাউন্ড বা ৫৪ কেজির কার্গোতে অ্যাপলো ১১ মিশনের একটি ‘মুন রক’ বা চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে সংগ্রহ করা পাথরও থাকবে। স্পেস শাটলের শেষ ফ্লাইটেও ছিল ওই পাথর। নাসা বলছে, মানব নভোচারীদের জন্য নির্মিত মহাকাশযানের চাঁদে ফেরার গুরুত্ব তুলে ধরতেই আর্টেমিস ওয়ানে থাকবে ওই চাঁদের পাথর। আর্টেমিস ওয়ানের কার্গোতে আরও থাকবে নাসার মহাকাশ প্রকল্পের সঙ্গে সংশিøষ্ট নানা সংস্থা ও বেশ কয়েকটি দেশের ছোট ছোট পতাকা, সিকামোরসহ বেশ কিছু গাছের বীজ, কোটের ল্যাপেল পিন, জাক্সা ও ইএসএর জ্যাকেট প্যাচ, থ্রিডি প্রিন্টারে বানানো গ্রিক দেবী আর্টেমিসের মূর্তি, লেগো মিনি-ফিগার এবং জার্মানির কয়েকটি স্কুল থেকে পাঠানো ইউএসবি ড্রাইভ। চাঁদে শেষবার মানুষের পদচিহ্ন পড়েছিল ১৯৭২ সালের অ্যাপলো ১৭ মিশনে। পাঁচ দশকে পর আবার চাঁদে ফেরার পরিকল্পনা করেছে নাসা। সে পরিকল্পনায় প্রথম বড় পদক্ষেপ হতে যাচ্ছে আর্টেমিস ওয়ান মিশন। ‘স্পেস লঞ্চ সিস্টেম (এসএলএস)’ রকেট আর ‘ওরিয়ন’ মিলে মহাকাশ যাত্রার ইতিহাসে আর্টেমিস যুগের শুরু করতে পারবে কি না, তার প্রথম পরীক্ষা হতে যাচ্ছে আর্টেমিস ওয়ান। ওরিয়ন ‘টাইম ক্যাপসুল’ কার্গো নিয়ে চাঁদ ঘিরে চক্কর দিয়ে নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরলে বলতে হবে, শুরু হয়েছে আর্টেমিসের যুগ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *