প্রশাসক হিসাবে নয়, ভালো মানুষ হয়ে কাজ করার চেষ্টা করেছি–জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ

পিপ (পাবনা) : পাবনার জেলা প্রশাসককে বিদায় সংবর্ধনা জানালো চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি। শুক্রবার সন্ধ্যায় চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির এর হল রুমে আয়োজিত বিদায় অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা আলোচনা পর্বে সভাপতিত্ব করেন পাবনা চেম্বারের সভাপতি মো. সাইফুল আলম স্বপন চৌধুরী। পাবনা চেম্বার পরিচালক ও পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমানের পরিচালনায় বিদায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সম্পাদক ও চেম্বারের পরিচালকবৃন্দ। পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ চলতি বছরের ৩১ মে সরকারে জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বদলীর নির্দেশনা মেতাবেক তিনি ভুমীমন্ত্রনালয়ের উপসচিব হিসাবে পদায়ন পেছেন। আর নতুন জেলা প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব পেয়েছেন বিশ্বাস রাসেল হোসেন।
পাবনার ব্যবসায়ীদের বিদায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাহেদ পারভেজ, সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি প্রবীন সাংবাদিক আব্দুল মতীন খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আফরোজা আক্তার, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার রেইনা, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নাছিম আহমেদসহ চেস্বারের সকল পরিচালকবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
বিদায় সর্বধনা অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন উপজেলার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ শুভেচছা বক্তব্য রাখেন। বিদায় অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালন কালে তার বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রশংসা করেন উপস্থিত সকল ব্যবসায়ীগণ।
ঐতিহ্যবাহী এই পাবনা জেলার ১৪২তম জেলা প্রশাসক হিসাবে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন। দায়িত্বপালন কালে তিনি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ব্যবসায়ীদের সাথে নিয়ে কাজ করেছেন। ব্যবসায়ীদের জন্য সরকারের দেয়া নানা নির্দেশনা ও সুযোগ সুবিধা প্রদান করেছেন তিনি। মানবিক ও সততার সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য ব্যবসায়ীরা তার প্রশংসা করেন সকলে।
অনুষ্ঠানে শেষ সময়ে বিদায়ী জেলা প্রশাসককে শুভেচ্ছা স্বারক প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষে উপস্থিত সকলকে সাথে নিয়ে রাতে খাবারে অংশ গ্রহণ করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক কবীর মাহামুদ শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, জেলা পশাসক হিসাবে নয় আমি সরকারে দায়িত্ব পালন করতে চাই ভালো মানুষ হয়ে। জেলার সকল মানুষ যাতে আমাকে ভালোবাসে। সরকারের উন্নয়ন মূলক কাজ জনগনের দোরগোড়ায় পৌছে দেয়ার জন্য আমাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। আমি শুধু পালন করেছি। জ্ঞাতসারে কোন অন্যায় কাজকে সমর্থন বা প্রশয় দেইনি। সকলে ভালো থকাবেন সকলে মিলে এক সাথে জেলার উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান তিনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *