প্রাইমারের প্রয়োজনীয়তা মেইকআপে

লাইফস্টাইল: সুন্দর ও নিখুঁতভাবে মেইকআপ করতে প্রাইমারের প্রয়োজন হয়। সাজসজ্জা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে প্রাইমার ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে জানানো হল।
ফাউন্ডেশনের শক্ত ভিত্তি: প্রাইমার ত্বকে একটা মসৃণ বেইজ তৈরি করে। ফলে ফাউন্ডেশন সুন্দরভাবে মুখে মিশে যায় এবং দীর্ঘস্থায়ী হয়। প্রকৃতঅর্থে, এটা ত্বকে পছন্দের বিবি ক্রিম ব্যবহারের উপযোগী করে তোলে। প্রাইমার ব্যবহারের ফলে ত্বকে দীর্ঘক্ষণ মেইকআপ স্থায়ী হয়।
আঙ্গুলের সাহায্যে প্রাইমার ব্যবহার করুন: মেইকআপ ব্রাশ বা স্পঞ্জ যতই পছন্দের হোক না কেনো প্রাইমার ব্যবহারের ক্ষেত্রে হাত ব্যবহার করা সব চেয়ে ভালো। আঙ্গুলে প্রাইমার লাগিয়ে ত্বকে লাগান। এতে ত্বকে ভালোভাবে মিশবে এবং চেহারায় প্রাকৃতিকভাব থাকবে।
প্রাইমার মেইকআপ ঠিক রাখে: রোদ, বৃষ্টি বা শীত- আবহাওয়া যেমনই হোক, প্রাইমার ত্বকের সঙ্গে আঠারো মতো লেগে থাকে। মানে ত্বকের সঙ্গে ভালোভাবে মিশে যায়। এটা দীর্ঘস্থায়ী মেইকআপে সাহায্য করে। তবে প্রাইমার ব্যবহারের পর ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে না।
প্রাইমারের ব্যবহার: যদি মেইকআপ না করেও নিখুঁত দেখাতে চান তাহলে ময়েশাচারাইজারের নিচে প্রাইমার লাগান। এতে দেখতে অনেক সতেজ লাগবে। তাছাড়া চোখের পাতায় প্রাইমার ব্যবহার করলে প্রাকৃতিক ‘আই শ্যাডো’র কাজ করে। তাই বলা যায়, প্রাইমার মেইকআপের ক্ষেত্রে আপনার সবচেয়ে কাছের বন্ধু। এটা সুন্দর ও সতেজ ভাব আনে।
ছবির প্রতীকী মডেল: জাকিয়া উর্মি। মেইকাআপ: বিন্দিয়া বিউটি পার্লার। আলোকচিত্র: ঋতিকা আলী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *