প্রেমিকাকে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে ৬জন মিলে ধর্ষণ

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রেমিকাকে বেড়াতে নিয়ে গিয়ে তিন বন্ধুসহ মোট ছয় জন সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করেছে প্রেমিক শামীম আহমেদ মামুন (২২)। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রেমিক মামুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে এ ঘটনা ঘটে। চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে মামুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামুন হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বাতাসর গ্রামের মকসুদ আলীর ছেলে।

বুধবার ভিকটিম বাদী হয়ে হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-২ এ পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের জন্য চুনারুঘাট থানার ওসিকে নির্দেশ দেন আদালতের বিচারক জিয়া উদ্দিন মাহমুদ। এজাহারে বলা হয়েছে, ওই কলেজছাত্রীর সঙ্গে মামুনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে মেয়েটিকে ফোন করে মামুন বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে। তিনি কলেজ থেকে বের হয়ে মামুনের সঙ্গে অটোরিকশায় করে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে যায়। সেখানে মামুন প্রথমে তাকে ধর্ষণ করে। পরে মামুনের বন্ধু ফজলুর, আলী ও জুনেদসহ অজ্ঞাত আরও দু’জন তাকে র্ধষণ করেন।

এ সময় অটোরিকশাচালক আক্কাছ জঙ্গলের বাইরে থেকে তাদের পাহারা দিচ্ছিল। ধর্ষণের পর মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঘটনাস্থল রেখে থেকে পালিয়ে যায় আসামিরা। পরে মেয়েটি উদ্যানের বাইরে বেরিয়ে এসে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক জানান, মামুনকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং মামুনের সহযোগিত অন্যান্যের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *