প্রেমিকার উপর অভিমান করে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

পাবনা প্রতিনিধি : প্রেমিকার সাথে মনোমালিন্য হওয়ায় অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে শুভ দাস (১৮) নামে এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে।
মঙ্গলবার (০৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে পাবনার চাটমোহর পৌর শহরের নতুনবাজার কালীসাগরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
মৃত শুভ দাস ওই এলাকার সুব্রত দাসের ছেলে। চলতি বছর চাটমোহর সরকারি কলেজ থেকে শুভর এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল।
জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকালে শুভর বাবা নিজ কর্মস্থলে এবং মা শুভ্রা দাস বাড়ির পাশে বাজারে কেনাকাটা করতে যান। সন্ধ্যার পর শুভর মোবাইলে তার বাবা কল করে কোনো সাড়া না পেয়ে বাড়িতে এসে দেখেন বাইরের গেট বন্ধ। এর মধ্যে বাজার থেকে ফেরেন শুভর মা।
ডাকাডাকি করে ছেলের সাড়াশব্দ না পেয়ে মই বেয়ে বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করেন বাবা সুব্রত দাস। এ সময় ঘরের আড়ার সঙ্গে ছেলেকে মাফলার পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শুভকে মৃত ঘোষণা করেন।
পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জনৈক এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল শুভর। সম্প্রতি তাদের দু’জনের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এ নিয়ে গত ২৭ নভেম্বর (শনিবার) ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় শুভ। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার পর সুস্থ হয়।
এদিকে মৃত্যুর ঘণ্টাখানেক আগে শুভ তার নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে বেশ কয়েকটি ছবি ও হিন্দি সিনেমার ভিডিও (আংশিক) পোস্ট দেন। এর মধ্যে সর্বশেষ সে তার প্রোফাইল পিকচারটি পরিবর্তন করে। শুভ সেখানে ইংরেজিতে লেখেন দ্য এন্ড।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সজীব শাহরীন, থানার ওসি মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ অন্য পুলিশ সদস্যরা।
এ ব্যাপারে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সাকের্ল) সজীব শাহরীন বলেন, ‘হাসপাতাল থেকে শুভ নামের ওই তরুণের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি বিষয়টি প্রেমঘটিত এবং মৃত্যুর আগে সে ফেসবুকে বেশ কয়েকটি স্ট্যাটাসও দেয়। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।’
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *