ফিঞ্চের চোখে তিন বিশ্বকাপ জয়ের ছবি

স্পোর্টস: সামনেই পিঠেপিঠি দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০ ওভারের ক্রিকেটের বিশ্ব আসরে অস্ট্রেলিয়ার আক্ষেপ ঘোচানোর সুযোগ। এরপর ভারতে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। অস্ট্রেলিয়ার শিরোপা পুনরুদ্ধারের চ্যালেঞ্জ। অ্যারন ফিঞ্চ তাকিয়ে আছেন এই তিন বিশ্ব আসরের দিকে। তিনটিতেই শিরোপা জয়ের ছক কাটছেন অস্ট্রেলিয়ার সীমিত ওভারের অধিনায়ক। ওয়ানডে বিশ্বকাপের সফলতম দল অস্ট্রেলিয়া বিস্ময়করভাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখনও শিরোপা জয়ের স্বাদ পায়নি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে আগামী বছরে চলে যাওয়া এখন একরকম নিশ্চিত। সেক্ষেত্রে ২০২১ ও ২০২২ সালে হবে টানা দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২৩ সালে অপেক্ষায় ওয়ানডে বিশ্বকাপ। মেলবোর্নের একটি রেডিওকে ফিঞ্চ জানালেন, ক্রিকেটবিহীন এই সময়ে তার অনেকটা সময় কাটছে সামনের এই তিন বিশ্ব আসর নিয়ে পরিকল্পনায়।

“ আমি ক্রিকেট পাগল মানুষ, তাই সবসময়ই এসব নিয়ে ভাবছি। বিশেষ করে, আমি যেহেতু অধিনায়কৃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসছে, যখনই সেটা হোক, টানা দুটি আসর আছে এরপর ভারতে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ। এই তিন আসরেই কিভাবে জিততে পারি ও চূড়ান্ত সাফল্য পেতে পারি, সেটির প্রক্রিয়া এগিয়ে নিচ্ছি আমরা।” ২০২৩ বিশ্বকাপের আগে এখনও সময় বাকি আছে অনেকটা।

তবে রেকর্ড ৫ বারের চ্যাম্পিয়নরা এখন থেকেই ভাবনা শুরু করেছে, জানালেন ফিঞ্চ। “ ৫০ ওভারের ম্যাচে ২০২৩ বিশ্বকাপে দৃষ্টি রেখে এগোচ্ছি আমরা। শিরোপা জিততে হলে আমাদের কোন পথে এগোনো উচিত, সেটির বিস্তারিত পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। ভারতে হবে টুর্নামেন্ট, দলের কাঠামো তাই হবে গুরুত্বপূর্ণ, দুই স্পিনার খেলাব আমরা, নাকি বাড়তি অলরাউন্ডার, এসব ভাবা হচ্ছে।” আগামী মাসেই ইংল্যান্ডে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে পিছিয়ে গেছে তা।

তবে সেপ্টেম্বরে এই সফর হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সেক্ষেত্রে সেই সিরিজ দিয়েই করোনাভাইরাস বিরতি শেষে মাঠে ফিরবে অস্ট্রেলিয়া দল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *