ফিলিপিন্সে হামের প্রাদুর্ভাব, মৃত ২৬

স্বাস্থ্য: ফিলিপিন্সে রাজধানী ম্যানিলাসহ কয়েকটি এলাকায় মারাত্মক ছোঁয়াচে রোগ হামের প্রাদুর্ভাবের ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। উদ্বেগ বাড়ছে টিকা না নেওয়া লাখো শিশুকে নিয়ে।
দেশটির ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ এপিডেমিওলোজির (ডিওেএইচ) তথ্যমতে, জানুয়ারিতেই দেশটিতে হাম আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৮১৩ জনে দাঁড়িয়েছে এবং ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২০১৮ সালের তুলনায় যা ৭৪ শতাংশ বেশি।
ম্যানিলায় ১ থেকে ১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত হাম আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায় ১৯৬ জনে। যেখানে গতবছর একই সময়ে সংখ্যা ছিল ২০ জন।
ম্যানিলার সান লাজারো হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৪৮ জন হাম রোগী ভর্তি হচ্ছে। ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ হাসপাতালে রোগী ভর্তি হয়েছে ১ হাজার ৩৫৫ জন। এর মধ্যে ১ হাজার ২৪০ জন ভর্তি হয়েছে জানুয়ারিতে। এদের ১ হাজার ১১৪ জনই শিশু।
ফেব্রুয়ারিতে সান লাজারো হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে অন্তত ২৬৪ রোগী। তাদের ২৪১ জনই শিশু। এর মধ্যে মারা গেছে ৮ জন। বাবা-মায়েরা শিশুদের হামের টিকা না নেওয়াতেই এ রোগ সংক্রমণ বেশি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ফ্রান্সিসকো দুকুয়ে।
২০১৭ সালে সরকারের ডেঙ্গু টিকা প্রকল্প ‘ডেংভাক্সিয়া’ নিয়ে জটিলতা এবং বিতর্কের পর থেকে বাবা-মায়েরা আর সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে শিশুদেরকে টিকা দেওয়াতে আগ্রহী হচ্ছেন না। ফলে টিকা না নেওয়া প্রায় ২৪ লাখ ফিলিপিনো শিশুকে নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।
বৃহস্পতিবার ফিলিপিন্সের মধ্য ও দক্ষিণাঞ্চলীয় এলাকা লুজন এবং মধ্য ও পশ্চিমাঞ্চলীয় একটি এলাকাতেও হামের প্রাদুর্ভাবের ঘোষণা দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
ফিলিপিন্সে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) প্রতিনিধি ডা. গুন্দো ওয়েইলার বলেছেন, দেশটিতে টিকা দেওয়ার হার ৯৫ শতাংশ লক্ষ্যমাত্রার অনেক নিচে রয়েছে এবং তা দিন দিনই কমছে। ২০১৬ সালে টিকাদানের হার ছিল ৭৫ শতাংশ। ২০১৭ সালে তা কমে ৬০ শতাংশ হয়েছে এবং ২০১৮ সালে তা আরো কমেছে। এ পরিস্থিতিতে বহু শিশু হাম আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *