ফেইসবুকে পাঁচ কোটি বিভ্রান্তিকর কোভিড-১৯ পোস্ট

আইটি: সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ক্রমেই বাড়ছে কোভিড-১৯ নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট। এ ধরনের পোস্টগুলো যাচাই করতে চাপও বাড়ছে প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর। এরইমধ্যে ফেইসবুক জানিয়েছে, এপ্রিল মাসে করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে প্রায় পাঁচ কোটি পোস্টে সতর্কবার্তা দিয়েছে তারা।

মঙ্গলবার সামাজিক মাধ্যম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ফেইসবুকের সত্যতা যাচাইয়ে অংশীদার প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রায় সাড়ে সাত হাজার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কনটেন্টগুলোতে সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, পহেলা মার্চ থেকে মাস্ক, স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক এবং কোভিড-১৯ টেস্ট কিট বিক্রি সম্পর্কিত ২৫ লাখের বেশি কনটেন্ট সরানো হয়েছে– খবর আইএএনএস-এর। ভুয়া তথ্য ছড়ানো বন্ধে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তি ‘খুব গুরুত্বপূর্ণ’ বলেও দাবি করেছে ফেইসবুক। সত্যতা যাচাইকারী স্বাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোর কাজ অনেকটা কমিয়ে দেয় এই প্রযুক্তি।

বিশ্বের ৬০টির বেশি সত্যতা যাচাইকারী সংস্থার সঙ্গে কাজ করছে ফেইসবুক। ৫০টি বেশি ভাষায় কনটেন্ট পর্যালোচনা করে প্রতিষ্ঠানটি। ব্লগ পোস্টে ফেইসবুক বলছে, “মহামারীর শুরু থেকে আমরা আমাদের বর্তমান এআই ব্যবস্থার পাশাপাশি নতুন ব্যবস্থা কাজে লাগিয়েছি, যাতে কোভিড-১৯ সম্পর্কিত যে কনটেন্টগুলোকে আমাদের সত্যতা যাচাইকারী অংশীদাররা ভুয়া তথ্য বলে সতর্ক করেছে সেগুলোকে শনাক্ত করা যায় এবং কেউ এই পোস্টগুলো কপি করে শেয়ার করতে চাইলে সেটিও আটকানো যায়।”

“কিন্তু এগুলো অনেক জটিল চ্যালেঞ্জ এবং আমাদের টুলগুলো এখনও নিখুঁত হওয়া থেকে অনেক দূরে,”– ফেইসবুক। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে ভুয়া কনটেন্টে ফেইসবুকের পদক্ষেপ অনেকটাই বেড়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লখ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

নিজস্ব প্রযুক্তির উন্নয়নের কারণেই এমনটা সম্ভব হয়েছে বলে দাবি ফেইসবুকের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *