ফের উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, কৃষ্ণাঙ্গের শরীরে ৭ গুলি

বিদেশ : মার্কিন অঙ্গরাজ্য উইসকনসিন শহরে কৃষ্ণাঙ্গকে গুলির ঘটনায় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করেছে দাঙ্গা পুলিশ। এক প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে। এরমধ্যেই তৃতীয় দিনের বিক্ষোভ আরও সহিংস রুপ লাভ করেছে। দ্বিতীয় রাত থেকেই ঘোষণা দিয়ে কারফিউ ভাঙা শুরু করে বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভকারীরা। সোমবার রাতে বেশ কিছু ভবন ও গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন বিক্ষোভকারীরা।

আগুন লাগিয়ে দেয়া হয় আদালত ভবনেও। একটি ম্যাট্রেসের দোকানে লাগানো আগুন ছড়িয়ে পরে বেশ বড় এলাকাজুড়ে। বেশ কয়েকটি ব্যাংকে ভাঙচুরও চালানো হয়। রোববার জ্যাকব ব্লেক নামে ২৯ বছর বয়সী এক কৃষ্ণাঙ্গকে গুলি করে পুলিশ। ভিডিওতে দেখা যায়, পরিবার নিয়ে গাড়ির সামনে দাাঁড়িয়ে আছেন ব্লেক। একপর্যায়ে তিনি গাড়িতে উঠার চেষ্টা করলে কর্তব্যরত পুলিশ তাকে একে একে ৭টি গুলি করে স্ত্রী ও সন্তানের সামনেই।

কেনোসা ফায়ার ডিপার্টমেন্টের প্রধান মঙ্গলবার সকালে জানান, রাতের বিক্ষোভ-আগুনে শহরটির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এর আগে শহরটিতে ন্যাশনাল গার্ড ডেকে পাঠান রাজ্যের গভর্নর টনি এভারস। তবে বিক্ষোভকারীদের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছেন গভর্নর এভারস।

তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে সংবিধান নাগরিকদের ক্ষোভ প্রকাশের অধিকার দিয়েছে। গুলিতে আহত ব্লেক ইনটেনসিভ কেয়ারে চিকিৎসাধীন। তার শরীরের ডান দিক পক্ষাঘাতগ্রস্থ হয়ে গেছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *