বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ৩, আহত ১৫

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ায় বাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ সিএনজির তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বাস ও সিএনজির ১৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। গুরুতর আহতদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে শিবগঞ্জ উপজেলার মহাস্থান বড় ব্রিজের অদূরে হাতিবান্ধা নামক স্থানে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গাইবান্ধার সাঘাটা থেকে বগুড়াগামী সিএনজি (বগুড়া-থ-১১-১৭৪১) ওই স্থানে পৌঁছালে রংপুরগামী আহসান এন্টার প্রাইজ (ঢাকা মেট্রো ব- ১৫-৫৭৭৫) বাসটি সিএনজিকে চাপা দিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এতে সামনের দিক থেকে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই সিএনজির দুই যাত্রী মারা যান। তারা হলেন মো: আশরাফ আলী (৫০) ও মোছা: পারুল বেগম (৪৫), তাদের বাড়ি বগুড়া সদরের বারপুর গ্রামে। গুরুতর আহত অবস্থায় বগুড়া মেডিক্যালে নেয়ার পথে সিএনজিতে থাকা দুমাস বয়সের শিশু রেজওয়ান মারা যায়।

নিহতের পরিবার জানায়, সিএনজিতে যাত্রী হিসেবে সিজারিয়ান মা তার ২ মাসের শিশু সন্তান রেজওয়ানকে নিয়ে নানার বাড়ি

 

বগুড়ায় করোনা সনাক্ত হার ৩২ শতাংশ ৭ দিনের বিধিনিষেধ আরোপ

বগুড়া প্রতিনিধি: গত ২৪ ঘন্টায় বগুড়ায় আরো ২জন করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন। তারা হলেন বগুড়া শহরের সূত্রাপুরের  নজরুল ইসলাম (৭৪) এবং নাটোর  জেলার গুরুদাসপুরের ছহিরউদ্দিন (৬০)। এদের মধ্যে শুক্রবার সন্ধ্যায় সিরাজুল ইসলাম সরকারি মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল এবং ছহিরউদ্দিন টিএমএসএস হাসপাতালে শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর আগেরদিন জেলায় ৪জনের প্রাণহানি ঘটে। এছাড়া  জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ১২৫ নমুনার ফলাফলে নতুন করে ৪১ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের হার ৩২দশমিক ৮শতাংশ। নতুন আক্রান্ত ৪১জনের মধ্যে সদরে ৩৪জন । শনিবার দুপুরে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন। এর আগের দিন জেলায় ২৭৪ নমুনায় ৬১জন করোনায় শনাক্ত হয়েছিলেন।  তিনি আরও জানান, এই নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রা হলেন ১২ হাজার ৭৯৮জন , মোট মৃত্যু ৩৪২জন  এবং বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন ২৯৭জন।

এদিকে সনাক্ত হার বেড়ে যাওয়ায় রোববার থেকে সাতদিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক স্বাক্ষরিত এক সরকারী আদেশে শনিবার এ ঘোষনা দেয়া হয়। এতে ২৬ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত শহরের মার্কেট, শপিংমল, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনার পাশাপাশি জরুরী প্রতিষ্ঠান ওষুধের দোকান , খাদ্য পন্যের দোকান সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান চলবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *