বর্ষায় চুল ভালো রাখবেন কীভাবে

লাইফস্টাইল: বর্ষাকালে চুল নিষ্প্রাণ হয়ে যায়। চুলের ডগা ফাটার সমস্যা বেড়ে যায়। সেই সঙ্গে বাড়ে চুল পড়াও। এই সময়ে আর্দ্র আবহাওয়ার জন্য নানা রকম ফাঙ্গাল ইনফেকশন বাড়ায় মাথার তালুতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই নিয়মিত মাথার তালু ও চুল পরিষ্কার রাখা দরকার। মাথার তৈলাক্ত ত্বক থেকে বাড়তে পারে খুশকির সমস্যাও। এই সময় চুল ভালো রাখতে কিছু নিয়ম অনুসরণ করা জরুরি। যেমন-
চুল পরিষ্কার রাখুন : প্রতিদিন মাথার তালু পরিষ্কার রাখা দরকার। সপ্তাহে ৩ দিন হালকা করে চুলে শ্যাম্পু করুন। চুলে খুশকির সমস্যা থাকলে অ্যান্টি-ড্যানড্রাফ শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন। এই সময় মাথায় ব্যাকটিরিয়াল সমস্যাও দেখা দেয়, তাই প্রয়োজন পড়লে অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।
কন্ডিশনিং করুন : বর্ষাকালে চুল প্রাণহীন ও শুষ্ক হয়ে যায়। তাই চুলের স্বাস্থ্য ফেরাতে ঠিক মতো কন্ডিশনিং করা দরকার। বর্ষার পানিতে ভিজে চুলের যে ক্ষতি হয় কন্ডিশনার ব্যবহার করলে তা অনেকটা কেটে যায়। বাজারে প্রচলিত কন্ডিশনার ব্যবহার করতে না চাইলে নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসেবে এটি দারুন ভূমিকা রাখে।
চুল শুকনো রাখুন : বর্ষাকালে চুল যদি ভিজে থাকে, তাহলে বিড়ম্বনার শেষ নেই। এজন্য ভালোভাবে চুলের পানি মুছে নিন। যদি বৃষ্টিতে ভিজে যান, তাহলেও তোয়ালে দিয়ে শুকনো করে চুল মুছে নিন। চুল বেশি ভিজে থাকলে তা থেকে ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন বেশি হতে পারে। ভিজে চুল কখনওই বাঁধবেন না। বাইরে বেরোনোর আগে চুল শুকিয়ে তারপর বেরোবেন।
চুল আঁচড়ান : চুল ভালো রাখার একটা প্রধান উপায় ঠিক মতো চুল আঁচড়ানো। তবে ভিজে অবস্থায় চুল আঁচড়াবেন না তাহলে আরও চুল ঝরে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। পারলে বড় দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ান। এতে চুলের ক্ষতি কম হবে। এছাড়াও এই সময় চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। দিনে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন ও শাকসবজি খান। মৌসুমি ফল ও বাদামও রাখুন খাদ্যতালিকায়। প্রোটিনজাতীয় খাবার চুলের স্বাস্থ্য ফেরাতে সহায়তা করে। খাদ্যাতালিকায় দই ও মাছ রাখুন নিয়মিত। এতেও চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *