বাগদাদে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

বিদেশ : দফায় দফায় বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের গ্রিন জোন, যেখানে একাধিক সরকারি দপ্তরের সঙ্গে বিদেশি দূতাবাস রয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বাগদাদের গ্রিন জোনে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের কাছেই একটি রকেট আঘাত হেনেছে। এছাড়া গ্রিন জোনের কাছের জাদ্রিয়া এলাকা এবং বালাদ বিমান ঘাঁটি, যেখানে মার্কিন সৈন্যরা রয়েছেন, সেখানেও রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। এসব ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি বলে ইরাকের সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

তবে জাদ্রিয়ায় অন্তত পাঁচজন আহতের খবর দিয়েছে পুলিশ। বাগদাদ বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর এলিট কুদস ফোর্সের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলেমানি নিহত হওয়ার পরদিন এই হামলা হল। ইরানের সবচেয়ে প্রভাবশালী সামরিক কমান্ডার সোলেমানিকে হত্যার ঘটনাকে সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা হিসেবে দেখছে ইরাকের প্রতিবেশী দেশটি। রক্তের বদলা নেওয়ার অঙ্গীকার জানিয়েছেন ইরানের শীর্ষ নেতারা। ইরানের মিত্র রাশিয়াও সোলেমানি নিহতের ঘটনা মধ্যপ্রাচ্যে নতুন করে উত্তেজনা বাড়াবে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে।

শুক্রবারের ওই হামলায় সোলেমানির সঙ্গে ইরাকি মিলিশিয়া কমান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিসও নিহত হয়েছেন। শনিবার সকালে ওই হামলায় নিহত ১০ জনের লাশ নিয়ে বাগদাদে শোক মিছিল হয়। মিছিলে যোগ দেওয়া লোকজনের মধ্যে আল-মুহান্দিসের পিএমএফের উর্দি পরা অনেক সদস্যও ছিলেন। অনেকের হাতে সোলেমানি ও মুহান্দিসের ছবি দেখা যায়। মিছিলে থাকা সাঁজোয়া যানগুলোতেও তাদের ছবি শোভা পাচ্ছিল।

শোক মিছিল এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সমবেত জনতা শ্লোগান তোলে, “আমেরিকা নিপাত যাক।” গত শনিবারের রকেট হামলা নিয়ে ইরাকের সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়, “বাগদাদের সেলিব্রেশন স্কয়ার ও জাদ্রিয়া এলাকা এবং সালাহউদ্দিন প্রদেশের বালাদ বিমান ঘাঁটি লক্ষ্য করে বেশ কয়েকটি রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। এতে কোনো প্রাণহানি হয়নি। আরও তথ্য আসছে।” বাগদাদের ৮০ কিলোমিটার উত্তরের বালাদ বিমান ঘাঁটিতে দুটি কাতিউশা রকেট নিক্ষিপ্ত হয়েছে বলে নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট দুইজন রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

আর বাগদাদের জাদ্রিয়া এলাকায় একটি মর্টার আঘাত হেনেছে এবং তাতে পাঁচজন আহত হয়েছেন বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।ইরান সমর্থিত মিলিশিয়া বাহিনীর ঘাঁটিতে মার্কিন হামলায় ২৫ জন নিহত হওয়ার পার বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে হামলা-ভাংচুরের দুই দিনের মাথায় এ ঘটনা মধ্যপ্রাচ্য ঘিরে উত্তেজনাকে নতুন মাত্রা দেবে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। ইরাকের মিলিশিয়া গোষ্ঠী কাতাইব হেজবুল্লাহ শনিবার ইরাকের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিগুলো থেকে দূরে থাকতে বলেছে বলে আল-মায়াদিন টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে। “নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের রোববার সন্ধ্যা থেকে আমেরিকান ঘাঁটিগুলো থেকে অন্তত হাজার মিটার দূরে থাকতে হবে,” ওই গোষ্ঠীর বরাত দিয়ে বলা হয়েছে তাদের খবরে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *