বাতাসে ভেসে বেড়ায় করোনাভাইরাস, নতুন নির্দেশিকা

বিদেশ: করোনাভাইরাসকে বায়ুবাহিত বলে মেনে নিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এর আগে করোনাভাইরাস ড্রপলেটের মাধ্যমে ছড়ায়, এমনটাই দাবি করেছিল তারা। কিন্তু ৩২ দেশের ২৩৯ বিজ্ঞানী নিজেদের রিসার্চের পর সংস্থার কাছে করোনাভাইরাসের বায়ুবাহিত হওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য আবেদন করেছিলেন।

প্রাথমিকভাবে সে তত্ত্বকে মেনে নিয়ে সংস্থাটি জানিয়েছিল সব খতিয়ে দেখার পর এই নিয়ে রায় দেবে। শুক্রবার তারা জানিয়ে দিল বিশেষ পরিস্থিতিতে বিশেষ আবহাওয়ায় বাতাসে ভেসে ছড়ায় করোনাভাইরাস।

এরপরেই নতুন গাইডলাইন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জানিয়েছে, মানুষের জানা উচিত হাওয়ায় ভেসে ছড়ায় করোনাভাইরাস। এইজন্য করোনাভাইরাসের থেকে বাঁচতে এই তথ্য জানা থাকলে উপকৃত হবেন মানুষ। কিছু বিশেষ এলাকায় বিশেষ পরিস্থিতিতে হাওয়ায় ভেসে ছড়ায় করোনাভাইরাস।

কোনও ভিড়ে পরিপূর্ণ জায়গায় এরোসোল ট্রান্সমিশনের পাশাপাশি হাওয়ায় ভেসেও ট্রান্সমিশন হয়। এই জায়গাগুলো হলো জিমনেশিয়াম, রেস্টুরেন্ট। যেখানে একই হাওয়া চলে সেখানেই এই সংক্রমণ ছড়ায়। কোনও বন্ধ জায়গায় করোনা সংক্রমিত ব্যক্তি যদি দীর্ঘক্ষণ থাকেন, তাহলে সে একই হাওয়ায় যদি অন্য মানুষরা নিঃশ্বাস নেন, তাহলে তাদের মধ্যেও সংক্রমণ ছড়ায়। তাই মানুষ যদি এই ধরনের জায়গা এই সময়ে এড়িয়ে চলেন তাহলে করোনা থেকে বাঁচতে পারে।

এই ধরনের জায়গাগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখে এরকম জায়গাতেও না যাওয়াই ভাল। এবার বিভিন্ন বিজ্ঞানীরা এই পরিস্থিতির অবস্থাগুলো খতিয়ে দেখবেন, তারপর এই বিষয়গুলো নিয়ে আরও বিশদ তথ্য পাওয়া যাবে। বিশ্বস্বাস্থ্য যে নতুন গাইডলাইন জারি করেছে তাতে ভিড়ে ভরা জায়গায় একেবারেই না যাওয়া ভাল। এছাড়াও মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। সূত্র : এনডিটিভি, দ্য হিন্দু।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *