বাড়ির বাইরে যাওয়ার অনুমতি পেল তুরস্কের শিশুরা

বিদেশ : করোনার বিস্তার ঠেকাতে এপ্রিলে দেশ লকডাউন করে তুরস্ক। তারপর থেকে দেশটির বেশিরভাগ মানুষ ঘরবন্দি। তবে মানসিক স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় ১৪ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুরা এখন বাড়ির বাইরে যেতে পারবে বলে ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, একমাস বন্দি থাকার পর অবশেষে তুরস্কের শিশুদের বাড়ির বাইরে যাওয়ার অনুমতি মিলল।

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, প্রতিদিন স্থানীয় সময় সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা সময় উল্লিখিত বয়সের শিশুরা বাড়ি থেকে বের হতে পারবে। চীনের পর ইউরোপ করোনা প্রাদুর্ভাবের কেন্দ্র হয়ে উঠলেও ইউরোপের সঙ্গে সীমান্ত সংযোগ থাকা তুরস্কে তখন সংক্রমণ তেমন একটা দেখা দেয়নি। তবে গত মাসের শুরু থেকে ব্যাপকহারে করোনার বিস্তার শুরু হয়।

তুরস্কে আক্রান্ত ১ লাখ ৪৩ হাজার মানুষের মধ্যে ৩ হাজার ৯৫২ জন মারা গেছে। আজকের সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, ১৫ থেকে ২০ বছর বয়সীরাও এখন থেকে শুধু শুক্রবার বাড়ির বাইরে যেতে পারবে। তুরস্ক বয়সভিত্তিক বিধিনিষেধ আরোপের মাধ্যমে লকডাউন জারি করেছিল। প্রথমে বাড়ির বাইরে বের হওয়ায় নিষেধাজ্ঞা ছিল ৬৫ বছরের বেশি এবং ২০ বছরের কম বয়সীদের জন্য।

শিশুদের বাড়ির বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া ছাড়াও ধীরে ধীরে লকডাউন প্রত্যাহার করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। সোমবার থেকে লকডাউন সংক্রান্ত বেশ কিছু বিধিনিষেধ শিথিল হচ্ছে। প্রসঙ্গত, তুরস্কে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্তদের মধ্যে প্রায় ১ লাখ ২ হাজার রোগী চিকিৎসা শেষে এখন সুস্থ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *