বিশ্বকাপ জেতার উপযুক্ত সময় চলে এসেছে ব্রাজিলের

স্পোর্টস: ২০০২ সালের পর আর বিশ্বকাপ ফুটবলের শিরোপা ছুঁয়ে দেখা হয়নি ব্রাজিলের। তারপর কেটে গেল চারটি বিশ্বকাপ। এর মধ্যে সর্ব্বোচ সাফল্য নিজ দেশে অনুষ্ঠিত আসরে তারা পৌঁছেছিল সেমিফাইনাল অবধি। অথচ বিশ্বকাপে সবচেয়ে সফল দল সেলেসাওরা। এবারের বিশ্বকাপ নিয়ে বেশ আশাবাদী দেশটির কিংবদন্তি রবার্তো কার্লোস। কাতার বিশ্বকাপে এই হতাশা কাটিয়ে শিরোপা ঘরে তুলবে বলে বিশ্বাস সাবেক এই ডিফেন্ডারের। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিল রীতিমতো অদম্যই ছিল। দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বটা পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে শেষ করেছিল তিতের শিষ্যরা। ম্যাচ হারেনি একটিও। মূলত স্বাপ্রথিক দলের পারফরমেন্স নিয়ে আশায় বুক বাঁধছেন রবার্তো কার্লোস। স্পোর্টস ম্যাক্সের সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় সাবেক এই তারকা ফুটবলার বলেন, ‘ব্রাজিলের একটি দারুণ দল রয়েছে। এটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এখনই (বিশ্বকাপ) জয়ের সময়, কারণ আমাদের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সবশেষ ছবিটি ২০০২ সালের। এবারের আসর নিয়ে আমি খুব আশাবাদী। যদিও বিশ্বকাপ জেতা সহজ নয়। তবে সাম্প্রতিক সময়ে ব্রাজিল দলটি যথারীতি দুর্দান্ত সব ম্যাচ খেলছে।’ ব্রাজিলের সবশেষ হারটা এসেছে কোপা আমেরিকার ফাইনালে, তাদের হারিয়ে ২৮ বছরের খরা শেষ করে আর্জেন্টিনা জেতে শিরোপা। তবে কার্লোস মনে করেন, মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের আসরের চেয়ে বিশ্বকাপের গুরুত্বটা ঢের বেশি। তিনি বলেন, ‘কোপা আমেরিকা গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু ব্রাজিলিয়ানদের জন্য বিশ্বকাপটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ, এর একটা আলাদা স্বাদ আছে।’ ৩৩ ম্যাচ অপরাজিত থাকা আর্জেন্টিনাও সাফল্য পেতে পারে। অন্যদিকে ফ্রান্স, ইংল্যান্ড, স্পেন ও জার্মানি বিশ্বকাপে ফেভারিটদের তালিকায় থাকবে। সবকিছু মিলিয়ে কার্লোসেরও একটাই চাওয়া, ব্রাজিল যেন বিশ্বকাপ জিতে।সবকিছু মিলিয়ে কার্লোসেরও একটাই চাওয়া, ব্রাজিল যেন বিশ্বকাপ জিতে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *