বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে: ডব্লিউএইচও

বিদেশ : বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস। মহামারির ছয় মাস পার হলেও এখনই কড়াকড়ি শিথিলের সময় আসেনি বলেও সতর্ক করেছেন তিনি। গত ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথমবার শনাক্ত হয় নভেল করোনাভাইরাস।

ইতোমধ্যেই দুই শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এ বৈশ্বিক মহামারি। আক্রান্ত হয়েছেন ৭০ লাখেরও বেশি মানুষ, প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত চার লাখ। শুরুতে করোনা মহামারির কেন্দ্রস্থল ছিল পূর্ব এশিয়া, পরে ইউরোপ, এখন ছড়িয়েছে আমেরিকায়। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতেও দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ। সোমবার জেনেভায় এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, ‘যদিও ইউরোপের অবস্থার উন্নতি হচ্ছে, তবে বিশ্বের পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘গত ১০ দিনের নয়দিনই এক লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। রাববার শনাক্ত হয়েছে ১ লাখ ৩৬ হাজারেরও বেশি, যা এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ।’ গ্যাব্রিয়েসুস জানান, রোববার শনাক্ত রোগীদের ৭৫ শতাংশই পাওয়া গেছে মাত্র ১০টি দেশে। এর মধ্যে আবার বেশিরভাগই লাতিন আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ার দেশ। তিনি বলেন, ‘যেসব দেশের পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে সেখানে এখন সবচেয়ে বড় হুমকি ‘‘আত্মতুষ্টি’’।’

তার মতে, বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ এখনও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বলেন, ‘মহামারির ছয় মাসেরও বেশি সময় গেছে। তবে কোনও দেশের জন্য এখনও প্যাডেল থেকে পা তুলে নেয়ার সময় আসেনি।’

এসময় যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকা-ের জেরে চলা বিক্ষোভ থেকে সংক্রমণের ঝুঁকি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গ্যাব্রিয়েসুস সব বিক্ষোভকারীকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নীতি মেনে আন্দোলনে যাওয়ার আহ্বান জানান।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *