বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় অর্থায়ন বন্ধ নয়, কমাবে যুক্তরাষ্ট্র

বিদেশ: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তহবিলে অর্থায়ন বন্ধের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। অর্থায়ন একেবারের বন্ধের বদলে তারা আংশিক অর্থায়নের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে। শনিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এ-সংক্রান্ত একটি খসড়া চিঠির বরাত দিয়ে শুক্রবার ফক্স নিউজ প্রতিবেদন প্রচার করেছে।

খসড়া চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তহবিলে চীন যে পরিমাণ অর্থায়ন করে তা মূল্যায়ন করে সমপরিমাণ অর্থায়ন করবে যুক্তরাষ্ট্র’। এতদিন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তহবিলে একক দেশ হিসেবে সবচেয়ে বেশি অর্থায়ন করে আসছিল যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি প্রতি বছর ৪০ কোটি ডলার দিত সংস্থাটিকে।

ফক্স নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অর্থায়নের পরিমাণ হতে পারে ৪০ কোটি ডলারের ১০ ভাগের এক ভাগ। গত ১৪ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তহবিলে অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তার অভিযোগ, করোনাভাইরাস মহামারি সম্পর্কে চীন যেসব ‘মিথ্যা তথ্য প্রচার করেছে তাতে সহযোগিতা করেছে’ জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থাটি।

মহামারি মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কার্যক্রম নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ট্রাম্প। এসব বিষয়ে সংস্থাটির পদক্ষেপ পর্যালোচনা করে দেখার নির্দেশ দেন তিনি। এ ছাড়া সংস্থাটিকে ‘চীনঘেঁষা’ বলেও মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। সংস্থাটি বলেছে, মহামারি মোকাবিলায় সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সঙ্গে কাজ করা হচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *