বিসিবি সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায়

স্পোর্টস: বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে ক্রীড়াঙ্গন। তবে করোনাকাল অতিক্রম করে এরইমধ্যে মাঠে ফিরেছে বুন্দেসলিগা। মাঠে ফেরার তারিখ চূড়ান্ত করে রেখেছে আরো কয়েকটি লিগ। তবে এখন পর্যন্ত মাঠে ফিরেনি কোন দেশের ক্রিকেট যদিও অনুশীলনে ফিরেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অন্যান্য দেশের মতো করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশেও সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার।

এমন পরিস্থিতিতে বন্ধ করে দেয়া হয় বিসিবি কার্যালয়। ৩১ তারিখ থেকে সাধারণ ছুটি শেষ হলেও এখন পর্যন্ত পুরোপুরি অফিস খোলা হয়নি বিসিবি। তবে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, পুনরায় কবে মাঠে ক্রিকেট ফিরবে সে ব্যাপারে নিদিষ্ট করে কিছু না বলতে পারলেও জুন মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

যদিও এর পুরোটাই নির্ভর করছে সরকারের ওপর। তিনি বলেন, ‘সীমিত পরিসরে গণ-পরিবহণ খুলে দেয়ার পর সরকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। এরপর হয়তো ঘরোয়া খেলার ইভেন্টগুলো শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবেন। সেক্ষেত্রে এক কিংবা দুই সপ্তাহের মতো সময় লাগতে পারে। তার মানে হলো জুনের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত কোনো ইভেন্ট শুরু করা সম্ভব হচ্ছে না।’

মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর জন্য খেলোয়াড়দের মতামতকে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেয়া হবে বলেও নিশ্চিত করেন বোর্ডের এই উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। একই সঙ্গে করোনা সংক্রমণের হাত থেকে ক্রিকেটারদের রক্ষা করতে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে বলে নিশ্চিত করেন তিনি। নিজামউদ্দিনের ভাষ্যমতে, ‘আমরা কিংবা ক্লাব চাইলেই তো আর হবে না।

খেলোয়াড়রা কি বলে সেটাইও গুরুত্ব দিতে হবে। ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু করার জন্য আমাদের খেলোয়াড়দের মতামত নিতে হবে। আমাদের প্রথমে জানতে হবে তারা কি চায়। তারা যদি রাজি হয় তাহলে আমরা সেভাবে পরিকল্পনা মাফিক খেলাগুলো সাজাবো।’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *