বেইজিংয়ে ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে করোনা, ২৭ মহল্লা লকডাউন

বিদেশ : দুই মাস স্থবিরতার পর নতুন করে করোনার প্রকোপ বাড়তে শুরু করেছে চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে। ফলে লাখ লাখ মানুষ আবারো লকডাউনের কব্জায় আটকা পড়েছেন। নতুন করে রাজধানীর ২৭টি মহল্লার মানুষকে বাইরে না যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বেইজিং থেকে বাতিল করা হয়েছে ১২শ ফ্লাইট। ৯ জুলাই পর্যন্ত ট্রেন সার্ভিস কমিয়ে দেয়া হয়েছে।

রাজধানীর প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক স্কুলগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বন্ধ হয়ে গেছে সুইমিং পুল, জিম। বুধবার বেইজিংয়ে নতুন করে ৩১ জনের দেহে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এক সপ্তাহে শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩৭। এর আগে টানা ৫৭ দিন ধরে বেইজিংয়ের বাসিন্দাদের কোনো করোনা পজিটিভ রোগী পাওয়া যায়নি।

ধারণা করা হচ্ছে বেইজিংয়ের শিনফানদি নামে বিশাল এক পাইকারি খাদ্যের বাজার থেকে নতুন করে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে। মূলত এই বাজার থেকে বেইজিংয়ের ৮০ শতাংশ মাংস এবং সবজি সরবরাহ হয়। চীনের রাজধানীর কমপক্ষে ২৭টি এলাকাকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তার মধ্যে ২৬টিতে ঝুঁকির মাত্রা মাঝারি, আর একটি এলাকা উঁচু মাত্রার ঝুঁকিপূর্ণ।

এ ২৭টি এলাকার বাসিন্দারা বেইজিংয়ের বাইরে যেতে পারবেন না। এমনকি কম ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার মানুষজনকেও রাজধানীর বাইরে যেতে গেলে ভাইরাসের পরীক্ষা করে দেখাতে হবে তারা সংক্রমিত নন। বেইজিংয়ে এখন ভাইরাস পরীক্ষা করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনটি টেস্টিং সেন্টার বিবিসিকে জানিয়েছে, তাদের কাছে এত মানুষ আসছে যে জুলাইয়ের আগ পর্যন্ত তারা নতুন কারো কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করতে পারবে না।

অন্যান্য কেন্দ্রের সামনেও পরীক্ষার জন্য লম্বা লাইন চোখে পড়ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *