বেড়ার প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যানে সহধর্মিনী উপ-নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী

পিপ (পাবনা) : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহাধন্য সদ্য প্রয়াত পাবনার বেড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের সহধর্মিনী রওনাক জাহান রানু আসন্ন উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন চান।

ইতোমধ্যে শারীরিক প্রতিবন্ধি ও উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত তার দুই ছেলে সন্তান মায়ের জন্য সমর্থন পেতে মাঠে নেমেছেন। উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের কাছে যাচ্ছেন, দেখা সাক্ষাত করছেন, মায়ের জন্য তারা দোয়া, ভালোবাসা ও প্রার্থীতা পেলে ভোট প্রার্থনাও করছেন। স্বামী হারানোর ৪০ দিন অতিকান্ত না হওয়ায় রওনাক জাহান রানু বাড়িতেই অবস্থান করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, মুঠোফোনে সবার সাথে সব সময় যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছেন। পাশাপাশি আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন দাবী করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে বেশ প্রচারপ্রচারণা।

রওনাক জাহান রানু বার্তা সংস্থা পিপ‘কে বলেন, আমার প্রয়াত স্বামী দীর্ঘ ৫০ বছর আওয়ামীলীগের রাজনীতির জন্য ছিলেন নিবেদিত। তিনি ছিলেন দেশপ্রেমিক যোদ্ধা। স্বাধীনতাকালে বৃহত্তর পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি। আমি ও আমার সন্তান এবং আত্মীয়স্বজন গর্ববোধ করি একজন বীরমুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী, সন্তান ও স্বজন হতে পেরে। আমার স্বামী জনগণের কথাই চিন্তা করতে সবসময়। সর্বস্তরের মানুষের ভালোবাসায় বারবার তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি সকল শ্রেণি মানুষের ভেতরে মিশে যেতেন। বিপদে আপদে যে কোন সময় আমার স্বামীকে উপজেলার মানুষ কাছে পেয়েছেন।

রওনাক জাহান রানু বলেন, আমার দুটি ছেলে সন্তান। বড় ছেলে শারীরিক প্রতিবন্ধি (জন্মগত কব্জি থেকে দুটো হাত নেই)। এখন দুই এতিম সন্তানকে নিয়েই আমার পথচলা। একজন মুক্তিযোদ্ধা স্ত্রী, স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নিবেদিত, পরীক্ষিত একজন নেতার স্ত্রী। এতিম দুটি সন্তানের মা হিসেবে দলীয় প্রধান, দেশের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্বামীর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে তার ভালোবাসা চাই। চাই দলীয় মনোনয়ন।

তিনি আরও বলেন, স্বামীর অসমাপ্ত কাজের পাশাপাশি এলাকার শিক্ষাব্যবস্থা, রাস্তাঘাট, কালভার্ট-ব্রিজ, নারী উন্নয়নে কর্মসংস্থান, বেকার সমস্যা দূরীকরণ, মাদক, চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, ছিনতাইরোধসহ সরকারের উন্নয়নমুখি সকল উদ্যোগ নিষ্ঠা আর দূর্নীতি মুক্ত হয়ে বাস্তবায়ন করতে চাই।

প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদেরের বড় ছেলে আবেদীন কাদের আদর জন্মগত ভাবেই কব্জি থেকে দুটো হাত নেই। তবুও থেকে নেই তিনি। ২০১২ সালে স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে এইচআরএম’র উপর এমবিএ সম্পন্ন করেছেন। তিনি বর্তমানে বেড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক। ছোট ছেলে রাশেদীন কাদের আম্মান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ অধ্যায়নরত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *