বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ এর উড়ান বন্ধ অধিকাংশ দেশে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশই ব্যবহার না করে মাটিতে নামিয়ে রাখা হয়েছে। মাত্র পাঁচ মাসের মধ্যে এ ধরনের নতুন দুটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে ৩৪৬ জন আরোহী নিহত হওয়ার পর বিশ্বের অধিকাংশ এয়ারলাইন্স ও বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ এ উড়োজাহাজটি ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, খবর নিউ ইয়র্ক টাইমসের। সচরাচর এক সপ্তাহের ভ্রমণে এই উড়োজাহাজটি ৮,৬০০ ফ্লাইটে ব্যবহৃত হতো, কিন্তু অধিকাংশ দেশ উড়োজাহাজটি নামিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ৬,০০০ ফ্লাইট ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে ফ্লাইট ট্র্যাকিং সার্ভিস ফ্লাইটরাডার২৪ এর তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে। বিশ্বের অধিকাংশ বিমান সংস্থাগুলো এমন সিদ্ধান্ত নিলেও যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার তিনটি এয়ারলাইন্স, আমেরিকান এয়ারলাইন্স, সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইন্স ও এয়ার কানাডা এখনো ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ ব্যবহার অব্যাহত রেখেছে। এই তিনটি এয়ারলাইন্স এখনো উল্লেখযোগ্য সংখ্যক এ ধরনের উড়োজাহাজ ব্যবহার করে যাচ্ছে। মার্কিন ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ মডেলকে নিরাপদ বলে ঘোষণা করেছে। অক্টোবরে ইন্দোনেশিয়ার কাছে জাভা সাগরে দেশটির লায়ন এয়ারের এ ধরনের একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে ১৮৯ জন আরোহী নিহত হওয়ার পর বোয়িংয়ের এ মডেলটি নিয়ে প্রথম উদ্বেগ দেখা দেয়। রোববার এ ধরনের দ্বিতীয় আরেকটি উড়োজাহাজ ইথিওপিয়ার আদ্দিস আবাবার কাছে বিধ্বস্ত হয়ে ১৫৭ জন আরোহী নিহত হন। দ্বিতীয় উড়োজাহাজটি কী কারণে বিধ্বস্ত হয়েছে এবং দুটি বিধ্বস্তের ঘটনাই একই কারণ সম্পর্কিত কি না তা এখনও পরিষ্কার হয়নি। তবে দুটি ক্ষেত্রেই উড়োজাহাজ দুটি নতুন ছিল। এ দুটি ঘটনার জেরেই পূর্ব সতর্কতা হিসেবে প্রায় বিশ্বব্যাপী বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ মাটিতে নামিয়ে রাখা হচ্ছে। বিশ্বব্যাপী যে সরকার, নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষগুলো ও স্বতন্ত্রভাবে যে এয়ারলাইন্সগুলো তাদের বহরে থাকা ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ নামিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের তালিকা নিউ ইয়র্ক টাইমস, বিবিসি, বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও পিটিআইয়ের প্রতিবেদন অনুয়ায়ী দেওয়া হল।

সরকার ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ:
অস্ট্রেলিয়ার বেসামরিক বিমান চলাচল নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ- অস্ট্রেলিয়ার ভিতরে ও বাইরে চলাচলকারী সব বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের উড্ডয়ন স্থগিত করেছে। চীনের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ- এয়ার চায়না, চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্স, চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইন্স ও হাইনান এয়ারলাইন্সেরগুলিসহ ৯৬টি ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ মাটিতে নামিয়ে রেখেছে তারা। ইউরোপীয় ইউনিয়ন অ্যাভিয়েশন সেইফটি- এর আকাশসীমায় ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের সব ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করেছে। ফ্রান্স- বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ দেশটির আকাশসীমায় ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজের চলাচল নিষিদ্ধ করেছে। জার্মানি- দেশটির পরিবহনমন্ত্রী তাদের আকাশসীমায় ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। ভারত- বুধবার স্থানীয় সময় বিকাল ৪টা থেকে তাদের আকাশসীমায় বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের চলাচল নিষিদ্ধ করেছে দেশটির দেশটির সরকার। ওই একই সময় থেকে দেশটির এ ধরনের সবগুলো উড়োজাহাজও মাটিয়ে নামিয়ে রাখার নিদের্শ দেওয়া হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ায়- ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ মাটিতে নামিয়ে রেখেছে। মালয়েশিয়া সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ- আকাশসীমায় ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ নিষিদ্ধ করেছে। নিউ জিল্যান্ড সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ- বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের চলাচল স্থগিত করেছে।
সিঙ্গাপুর সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ- সব বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের চলাচল স্থগিত করেছে। যুক্তরাজ্যের সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ- তাদের আকাশসীমায় ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজের চলাচল স্থগিত করেছে। যে সব এয়ারলাইন্সগুলো ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ মাটিতে নামিয়ে রেখেছে তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যগুলো হল: আয়রোলিনেস আর্হেন্তিনাস, আয়রোমেহিকো, এয়ার চায়না, কেম্যান এয়ারওয়েজ, চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্স, চায়না সাউদার্ন, কমএয়ার, ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্স, গারুডা ইন্দোনেশিয়া, গল এয়ারওয়েজ, হাইনান এয়ারলাইন্স, আইসল্যান্ডএয়ার, কুনমিং এয়ারলাইন্স, লায়ন এয়ার, নরওয়েজিয়ান, ওকে এয়ারওয়েজ, শানডং এয়ারলাইন্স, শাংহাই এয়ারলাইন্স, শেনজেং এয়ারলাইন্স, সিল্ক এয়ার, স্পাইস জেট, টিইউআই, শিয়ামেন এয়ারলাইন্স, টার্কিশ এয়ারলাইন্স, ফ্লাই দুবাই, স্মার্টউয়িংস, জেট এয়ারওয়েজ, এলওটি, ওমান এয়ার, সানউয়িং এয়ারলাইন্স, এয়ার ইতালি, লাকি এয়ার, এন্টার এয়ার, ফিজি এয়ারওয়েজ, এস৭ এয়ারলাইন্স। অন্ততপক্ষে ৪০টি এয়ারলাইন্স বোয়িংয়ের এই মডেলের উড়োজাহাজগুলোকে সার্ভিসের বাইরে রাখার ঘোষণা দিয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *