ভাঙ্গুড়ায় ২৪ ঘন্টায় দুই স্কুল ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

পিপ (পাবনা) : পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে সাথী শীল (১৪) এবং সীমা পারভীন (১২) নামে দুই স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত সাথী উপজেলার দিলপাশার ইউনিয়নের দিলপাশার গ্রামের রবীন্দ্রনাথ শীলের মেয়ে ও দিলপাশার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী এবং শিমা উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামের ইউসুফ আলীর মেয়ে ও চাঁদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ জানায়,সোমবার (০৭ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামের ইউসুফ আলীর মেয়ে সীমা ঘরের ডাবের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। অপরদিকে রোববার (০৬ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার দিলপাশার গ্রামের রবীন্দ্রনাথ শীলের মেয়ে সাথী শীল ঘরের ডাবের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে দু‘টি মৃত্যুর কোন কারণ জানা যায়নি। এলাকাবাসী দু‘জনের মৃত্যুর পিছনেই কোন রহস্য রয়েছে বলে দাবি করেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দিলপাশার গ্রামের জনৈক ব্যক্তি জানান,সাথী শীল দিলপাশার হাই স্কুলের ছাত্রী। সে পরীক্ষার খাতা জমা দেওয়ার জন্য আগের দিন স্কুলে গিয়েছিল। তখন অজ্ঞাত কারণে প্রধান শিক্ষক তাকে অকথ্য ভাষায় বকাঝকা করেন। তবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফসার আলী রানা‘র মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মুহম্মদ আনোয়ার হোসেন দুটি মেয়ের আত্মহত্যার কথা স্বীকার করে বলেন,লাশ দুটো উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সোমবার পাবনা জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় দুটি পৃথক ইউডি মামলা রেকর্ড হয়েছে। তবে পুলিশ তাদের মৃত্যুর রহস্য খুঁজে দেখছে বলে জানান তিনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *