ভারতে করোনা আক্রান্ত ৩ লাখ পেরুলো

বিদেশ: ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা। শনিবার ৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে আক্রান্তের সংখ্যা। বৈশ্বিক সংক্রমণের হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল ও রাশিয়ার পরই এখন চতুর্থ স্থানে রয়েছে ভারত। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যেও মৃত্যুর সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে দেশটি। এরইমধ্যে ভারতে প্রথম ধাপে লকডাউন তুলে নেওয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা কোথায় গিয়ে থামবে, তা নিয়ে শঙ্কিত দেশটির কর্তৃপক্ষ।

খবর এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার। ভারতে প্রতিদিনই সংক্রমণের নতুন রেকর্ড গড়ছে প্রাণঘাতি করোনা। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় শনিবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে জানিয়েছে, আগের ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ৪৫৮ জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে এত সংখ্যক মানুষ এর আগে আক্রান্ত হননি। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮ হাজার ৯৯৩ জন।

ভারতের সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত রাজ্য মহারাষ্ট্রেও আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ পেরিয়ে গেছে। এ রাজ্যে ১ লাখ ১ হাজার ১৪১ জন এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন। এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ভারতে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৮৬ জনের। এ নিয়ে মোট ৮ হাজার ৮৮৪ জন মারা গেলেন করোনার কারণে। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রেই মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৭১৭ জনের। গুজরাটে মারা গেছেন ১ হাজার ২৪৪ জন। বিগত কয়েক দিনে দিল্লিতেও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা।

রাজধানী শহরটিতে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ২১৪ জন মারা গেছেন করোনায়। মৃত্যুর সংখ্যায় দেশের চতুর্থ স্থানে পশ্চিমবঙ্গ। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ রাজ্যে মোট ৪৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া মধ্যপ্রদেশে ৪৪০ জন, তামিলনাড়ুতে ৩৬৭ জন, উত্তরপ্রদেশে ৩৬৫ জন, রাজস্থানে ২৭২ জন ও তেলেঙ্গানায় ১৭৪ জন প্রাণ হারিয়েছে। এদিকে ভারতে করোনা আক্রান্তদের সুস্থ হওয়ার হারও বেড়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত দেশে মোট ১ লাখ ৫৪ হাজার ৩৩০ জন মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েও চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ভারতে তিন লাখ সংক্রমণের মধ্যে প্রথম এক লাখ আক্রান্ত হয়েছে ১১০ দিনে, দ্বিতীয় এক লাখ আক্রান্তের ক্ষেত্রে সময় নিয়েছে মাত্র ১৫ দিন এবং তৃতীয় লাখ আক্রান্তে মাত্র ১০ দিন লেগেছে। এতো দ্রুত সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পরবর্তী করণীয় নিয়ে রাজ্যগুলোর মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আগামী ১৬ জুন এ বৈঠক হবে ভিডিও কনফারেন্সে। লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিলসহ নানা বিষয়ে আলোচনা হবে ওই বৈঠকে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *