ভারত নিয়ে ভাবছেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা

স্পোর্টস: সাফে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ১-০ গোলে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে সুন্দর সূচনা করেছে। প্রথম জয়টা ভুলে গিয়ে সামনে ভারত নিয়ে ভাবছেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা। স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনের মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে শক্তিশালী ভারত। সোমবার বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ। কোচের মাথায় শ্রীলঙ্কা ম্যাচের ভুলগুলো ছবি হয়ে ভেসে উঠছে। বাংলাদেশ দলের সঙ্গে রয়েছেন বাফুফের টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর অস্ট্রেলিয়ান পলস্মলি। আছেন বিদেশি কোচিং ষ্টাফ। তারাও অস্কার ব্রুজনকে সহয়তা করছেন চিহ্নিত সমস্যাগুলো নিয়ে। অস্কার ব্রুজন তিন বছর ধরে বাংলাদেশে কাজ করছেন। দুটি সাফল্য এনে দিয়েছেন ক্লাব দল বসুন্ধরাকে। এদেশের খেলোয়াড়দের মানদন্ড বুঝার অলিগলি পথটা ভালো জানা আছে। ভারত কেমন শক্তিশালী সেই পরিমাপটাও ব্রুজনের জানা। পাল্লায় ওজন করলে বেরিয়ে আসে সুনীল ছেত্রীদের মান আর জামাল ভুইয়াদের মান। অসম শক্তির লড়াইয়ে বাংলাদেশকে পেছন থেকে শুরু করতে হবে। গোলপোষ্টের দরজা সীলগালা করে প্রতিপক্ষ দলের গোলের দরজা খোলা যাবে নাকি নিজেদের দরজা বন্ধ রাখার মিশনে নামবে সেটা রোববার নির্ধারণ করবেন অস্কার ব্রুজনের কোচিং ষ্টাফরা। তারা মাথায় রাখছেন সাফে ভারতের প্রথম ম্যাচ। অতএব ভারত সর্বশক্তি নিয়োগ করবে। খেলার পরদিন রিকভারী সেশন হয়। যারা যতটুকু খেলেছে তাদের ঘাটতিটুকু অনুশীলন করানো হয়েছে। কোচ অস্কার ব্রুজন সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেননি। পাঠিয়েছিলেন কোচিং ষ্টাফদের একজন সাবেক ফুটবলার মাহবুব হোসেন রকসিকে। তিনি জানালেন, ‘আমরা প্রথম ম্যাচে খেলোয়াড়দের কাছে যেভাবে চেয়েছিলাম তারা সেভাবে দিতে পেরেছে। উইনিং চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিলাম, খেলোয়াড়রা প্রথম মিশনে সাকসেস। এখন আমাদের গোল বাড়াতে হবে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গোল করার মতো পরিস্থিতি তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু গোল হচ্ছে ভাগ্যের ওপর নির্ভর করে, সঙ্গে স্কীল। দু’টোকে সমন্বয় করে গোল পাওয়া যায়।’ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বল পজিশনে বাংলাদেশ এগিয়ে ছিল। দুই প্রান্ত হতে আক্রমণের ছবিও দেখা গেছে। কিন্তু গোল মুখে গিয়ে সব মুখ থুবড়ে পড়েছিল, জামাল, সুফিল, ইব্রাহিম, মতিন মিয়া, জুয়েল রানা, সুমন রেজারা পারছিলেন না। ডিফেন্ডার তপু বর্মন তার জায়গা হতে উঠে গিয়ে শ্রীলঙ্কার বক্সে হানা দিয়েছেন। রক্সি বললেন, ‘ফিনিশিং নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। আমরা খেলোয়াড়দের জানিয়েছি স্টেপ বাই স্টেপ আগাতে হবে। আমাদের পরবর্তী ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে। এখন ভারত নিয়েই যত ভাবনা।’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!