ভেট্টোরি নিজের বেতন বাংলাদেশের কর্মীদের দিচ্ছেন

স্পোর্টস: করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত প্রতাপে লড়াই করছে নিউজিল্যান্ড। টানা ছয়দিন দেশটিতে কোনো নতুন করোনা রোগী পাওয়া যায়নি। সবার আগ্রহ ও চেষ্টাতেই এটা সম্ভব হয়েছে। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের টুইটের ভাষায়, দুর্দান্ত বোলিংয়ে টানা ছয় ডট বলে মেডেন ওভার আদায় করে নিয়েছে দেশটি। করোনার যুদ্ধে দেশটি অনেকটাই এগিয়ে গেছে।

করোনা যুদ্ধে বাংলাদেশের পরিস্থিতি ভিন্ন। এমন পরিস্থিতিতে নিউজিল্যান্ডের সাহায্য পাচ্ছে বাংলাদেশ। করোনা-আক্রান্ত এই সময়ে জীবিকা হারিয়েছেন অনেকেই। অর্থাভাবে ভুগছেন দেশের বড় একটি অংশ। ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরাও এর বাইরে নন। অসহায় হয়ে পড়া মানুষদের বিসিবি ও ক্রিকেটারদের অনেকেই যে যার সাধ্যমতো সাহায্য করছেন।

সেই যুদ্ধে আছেন জাতীয় দলের স্পিন বোলিং পরামর্শক ড্যানিয়েল ভেট্টোরিও। বিসিবি থেকে পাওয়া বেতনের কিছু অংশ বোর্ডের স্বল্প বেতনের কর্মচারীদের দান করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক।

কাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী, ‘ভেট্টোরি বলেছেন, তাঁর বেতনের নির্দিষ্ট একটি পরিমাণ যেন আমরা বিসিবির অসচ্ছল কর্মীদের সাহায্য হিসেবে দিই। ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগকে অনানুষ্ঠানিকভাবে তিনি এই ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।’

কয়েক দিন আগেই জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অধীন ২৩টি ফেডারেশনের ক্রীড়াবিদদের মোট ৫০ লাখ ১০ হাজার টাকা অনুদান দেয় বিসিবি। এ ছাড়া তারকা ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত ও সম্মিলিতভাবে করোনায় দুর্গত ব্যক্তিদের সাহায্য করেছেন।

ভেট্টোরি বাংলাদেশ দলে যোগ দিয়েছেন গত নভেম্বরে। আগামী নভেম্বর পর্যন্ত তাঁর চুক্তি। ভেট্টোরি হচ্ছেন বিসিবির সবচেয়ে দামি কোচ। দিনপ্রতি তাঁর পারিশ্রমিক কর কেটে আড়াই হাজার ডলারের মতো।

কিউই কিংবদন্তির বেতন নিয়ে নানা আলোচনা হলেও তাঁর এ আগ্রহ প্রশংসনীয়। যদি সত্যি আর্থিক সহায়তা দেন, সেটি একটি ব্যতিক্রম উদাহরণ হবে। কাল অবশ্য বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগে যোগাযোগ করে জানা গেছে, আগ্রহ প্রকাশ করলেও ঠিক কবে ভেট্টোরি আর্থিক সহায়তা করতে চান, সেটি এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *