মধুচন্দ্রিমায় মালদ্বীপে ওমর সানী-মৌসুমীর ছেলে

বিনোদন: চিত্রনায়ক ওমর সানী ও মৌসুমীর ছেলে ফারদিন এহসান স্বাধীন বিয়ে করেছেন চলতি বছর। কনে আয়েশা কানাডা প্রবাসী, জন্মসূত্রে বাংলাদেশি। বাড়ি কুমিল্লায় হলেও পড়াশোনা আর বেড়ে ওঠা কানাডায়। বিয়ে খুব ঘটা করে না হলেও এই বিয়েতে ওমর সানী মৌসুমী ছিলেন বেশ খুশি। ঘরোয়া ভাবেই যতটা সম্ভব আড়ম্বরপূর্ণ করার চেষ্টা করেছেন। চলতি বছরের মার্চে বিয়ে হলেও, বিয়ে পরবর্তী কোনো খবরে ছিলেন না স্বাধীন। অবশ্য নেতিবাচক একটি খবরে সংবাদ শিরোনাম হয়েছিলেন- গত মে মাসে তার রেস্তোরাঁ রেস্তোরাঁ ‘মন্টানা লাউঞ্জ’ থেকে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ১৮ মে গুলশানের আরএম সেন্টারে থাকা ওই রেস্তোরাঁয় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সিসা সেবনের সরঞ্জামসহ তাদেরকে আটক করা হয়েছে। তারা সবাই ওই রেস্তোরাঁর কর্মচারী বলে জানা যায়। করোনার প্রভাব কেটে গেলে বিয়ের অনুষ্ঠান খুব বড় করে করবেন বলে জানিয়েছিলেন ওমর সানী। তবে বড় অনুষ্ঠান আর হয়নি। এরইমাঝে ফারদীনকে দেখা গেল মালদ্বীপে। না একা নন, রীতিমতো মধুচন্দ্রিমায় গিয়েছেন ফারদীন ও আয়েশা। ফারদীন বিষয়টি নিয়ে তেমন প্রকাশ্য না হলেও আয়েশা নিজের ইনস্টাগ্রামে ধারাবাহিক ছবি প্রকাশ করেছেন। সেখানেই মালদ্বীপে, সমুদ্র ধারের রিসোর্টে বিভিন্ন মুহূর্ত ধরা পড়েছে। আয়েশা নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে প্রথমে একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন। সেখানে মুখ দেখা না গেলেও বোঝা যাচ্ছিল তিনিই আয়েশা। এরপর বেশ কয়েকটি একক ছবি প্রকাশ করেন ও ফারদীনের সঙ্গে একটি ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের দ্বৈত ছবি প্রকাশ করেছেন। নেটিজেনরা এরি ছবি থেকেই নানা মন্তব্য জুড়ে দিচ্ছেন, যার অধিকাংশ অর্থই হলো- রোমান্টিক মুহূর্ত বেশ ভালোই কাটাচ্ছেন ফারদীন ও আয়েশা। অবশ্য গতমাসের। অর্থাৎ সেপ্টেম্বরে ছিল আয়েশা ও ফারদীনের মালদ্বীপে মধুচন্দ্রিমা সফর। বিয়ের কয়েক মাস আগে ফারদীনের সঙ্গে পরিচয় হয় আয়েশার। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, ভালো লাগা। সেই ভালো লাগার সূত্র ধরেই দুই পরিবারের অলোচনায় ঠিক হয় বিয়ের সিদ্ধান্ত। চলতি বছরের মার্চেই বিয়ে হয় আয়েশা ও ফারদীন এহসান স্বাধীনের।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *