মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে পারছে না শ্রীলঙ্কা!

স্পোর্টস: প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন মাঠে নেই কোন ক্রিকেট। বাসায় বসেই অলস সময় কাটাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। তবে করোনাকে আর ভয় নয়, একে সাথে নিয়েই চলতে হবে এমন চিন্তা করেই করোনায় বিপর্যস্ত ইংল্যান্ডের মাটিতে ফিরছে ক্রিকেট। তবে ইংল্যান্ডের চেয়ে কম আক্রান্ত হয়েও শ্রীলঙ্কার মাটিতে এখনও ক্রিকেট ফেরাতে পারেনি।

খুব শীঘ্রই দেশটিতে ক্রিকেট ফেরাতে উঠেপড়ে লেগেছে। অনুশীলনও শুরু করেছে তারা। তবে প্রতিপক্ষের অভাবে মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে পারছে না দেশটি। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কায় এখন প্রায় নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। তাইতো চলতি মাসের শুরুতে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটে ফেরার প্রস্তুতি নেয়। তারই অংশ হিসেবে ১৩ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে আবাসিক প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের আয়োজন করে। শ্রীলঙ্কান কোচ মিকি আর্থার সেই প্রশিক্ষণ শেষে বলেছেন- ‘শ্রীলঙ্কা সামনের মাসেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য প্রস্তুত।’

আবাসিক প্রশিক্ষণের সেশন শেষ করে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট কোচ আর্থার জানান- ‘এই অনুশীলন ক্যাম্পে আমরা ফিটনেস ঠিক করার চেষ্টা চালিয়েছি। প্রতিদিনই একটু একটু করে বোলাররা প্রশিক্ষণে তাদের সময় ও দক্ষতা বাড়িয়েছে। যেভাবে আমরা সামনে বাড়ছি তাতে সামনের মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার জন্য আমার দল তৈরি।’ জুলাইয়ে বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কায় টেস্ট ক্রিকেট সূচি ছিল। করোনাভাইরাস সঙ্কটে থাকা বাংলাদেশ দল যেহেতু এখন ক্রিকেট খেলার জন্য প্রস্তুত নয়, তাই এই সিরিজটা আপাতত স্থগিত।

জুলাই পরবর্তী ভারতীয় ক্রিকেট দলেরও শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার সূচি ছিল। কিন্তু ভারত সেই সূচি স্থগিত করে দিয়েছে। এই সময়ে মাঠে খেলার জন্য কোনো প্রতিপক্ষই পাচ্ছে না শ্রীলঙ্কা। মার্চে করোনা ভাইরাসের কারণে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল সফর অসমাপ্ত রেখে শ্রীলঙ্কা ছেড়ে নিজ দেশে ফিরে যায়।

তারপর বাংলাদেশ এবং ভারতের সঙ্গেও ঘরের মাটিতে সিরিজ স্থগিত। পাঁচ মাসের মধ্যে তিনটি সিরিজ স্থগিত। আর্থিকভাবেও বড় ধাক্কা খেয়েছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *