মাদ্রাসা শিক্ষকের বর্বরতার শিকার শিশু

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি : পাবনার ভাঙ্গুড়ায় সাব্বির হোসেন (১৩) নামে এক শিশুকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করেছে মাদ্রাসা শিক্ষক রাজিবুল ইসলাম রাজিব। আজ বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের রাংগালিয়া গ্রামের আলহেরা নূরানী স্কুল এন্ড হাফিজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত রাজিব ওই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক।

এ ঘটনায় নির্যাতিত শিশুর পিতা খোকন বিশ্বাস উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভাঙ্গুড়া থানায় অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের কাশীপুর গ্রামের খোকন বিশ্বাসের ছেলে সাব্বির পার্শ্ববর্তী রাংগালিয়া গ্রামের আলহেরা নূরানী স্কুল এন্ড হাফিজিয়া মাদ্রাসায় হাফিজিয়া শাখায় এক বছর ধরে পড়াশোনা করে। করোনা ভাইরাসের উদ্ভূত পরিস্থিতিতেও সরকারের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এই মাদরাসায় পাঠদান চলছে। এ অবস্থায় সাব্বির বুধবার মাদ্রাসায় অনুপস্থিত থাকে। পরে বৃহস্পতিবার সকালে সাব্বির মাদ্রাসায় গেলে প্রধান শিক্ষক তাকে অনুপস্থিতির অভিযোগে পেটাতে থাকে। এসময় সাব্বির মেঝেতে পড়ে গড়াগড়ি দিয়ে চিৎকার করতে থাকলে শিক্ষক তার পায়ের তালুতে মেরে মারাত্মক জখম করে। শিশুটির চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পিতার বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর শিশুটিকে নিয়ে তার পিতা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ইউপি চেয়ারম্যানকে দেখায়। তাদের পরামর্শে থানায় অভিযোগ দেয় শিশুর পরিবার।

অভিযোগের বিষয়ে শিক্ষক রাজীবকে ফোন করা হলে পেটানোর কথা স্বীকার করেন। তবে কেন কিভাবে শিশুকে নির্যাতন করলেন জানতে চাইলে তিনি ব্যস্ততার কথা বলে ফোন কেটে দেন।

শিশুটির পিতা খোকন বিশ্বাস বলেন, ধর্ম ও সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে শিশুটিকে মাদ্রাসায় ভর্তি করাই। কিন্তু শিক্ষকের বর্বরতার শিকার হয় আমার ছেলে। আমি এর যথোপযুক্ত বিচার চাই।

ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই নুরজাহান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, অত্যন্ত হৃদয়বিদারক ঘটনা। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!