যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানীদের বংশবৃদ্ধিতে সক্ষম রোবট উদ্ভাবনের দাবি

আইটি: প্রাণহীন জটিল সব যন্ত্রাংশ দিয়ে তৈরি রোবট। যা দিয়ে জটিল অনেক কাজ অনায়াসে করা যায়। এবার বংশবৃদ্ধিতে সক্ষম রোবট উদ্ভাবনের দাবি করছে যুক্তরাষ্ট্রের একদল বিজ্ঞানী। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সিএনএন। প্রতিবেদনে বলা হয়, আফ্রিকার ব্যাঙের নামে এই রোবটের নাম জেনোবটস দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের দাবি, এই রোবট বংশবৃদ্ধি ঘটাতে পারলেও এর প্রজনন পদ্ধতি উদ্ভিদ বা প্রাণীর থেকে একেবারে ভিন্ন। বিজ্ঞানীরা জানান, জেনোপাস লেভিস নামে আফ্রিকান প্রজাতির ব্যাঙের স্টেম সেল থেকে এ রোবট গঠন করা হয়েছে। রোবটটি লম্বায় এক মিলিমিটারের অর্ধেকের চেয়েও কম। গবেষণায় যুক্ত আছেন ভারমন্ট বিশ্ববিদ্যালয়, টাফটস বিশ্ববিদ্যালয় ও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েসিস ইনস্টিটিউট ফর বায়োলজিক্যালি ইন্সপায়ারড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের গবেষকরা। এ তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সঙ্গে কাজ করা বিজ্ঞানী স্যাম ক্রাইগম্যান বলেন, ‘ক্ষুদ্র এই রোবট কী ধরনের কাজ করতে পারে, তা আমরা বের করার চেষ্টা করেছি। আমরা দেখতে পেয়েছি, এটি পাত্র পরিষ্কারের কাজ করতে পারে।’
কীভাবে এই রোবট বংশবৃদ্ধি করে কী করে?
ভারমন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞানের অধ্যাপক এবং রোবটিকস বিশেষজ্ঞ জোশ বনগার্ড জানান, জেনোবটস তৈরিতে ব্যাঙের ভ্রƒণ থেকে স্টেম সেল আলাদা করে প্রজননের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোনো জিনগত পরিবর্তন আনা হয়নি। দেখা গেছে, এটি নিজে থেকেই কাজ করতে পারে। তিন হাজার কোষ ব্যবহার করে তৈরি গোলক আকৃতির এ রোবট বংশবৃদ্ধি করতে সক্ষম। অর্থাৎ জেনোবটস একদিকে যেমন রোবট, তেমনি এটি জীবও বলে দাবি করেন জোশ বনগার্ড।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *