যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় ১ লাখের বেশি মৃত্যু

বিদেশ: যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এক লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এমনটাই দাবি করেছেন হার্ভার্ডের এক অধ্যাপক। তার দাবি, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে এমন প্রায় ২০ হাজার মৃত্যু হিসাবের বাইরেই রয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনায় ৮৭ হাজারের বেশি মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

ওই অধ্যাপক বলছেন, গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত ৭০ হাজারের বেশি আমেরিকানের মৃত্যু হয়েছে। ওই একই সময়ে করোনায় মৃত্যের সংখ্যা ছিল ৫২ হাজার ৪২২। অর্থাৎ কমপক্ষে ২০ হাজার মৃত্যু হিসাবের বাইরে রয়েছে। যদি ওই ২০ হাজার যোগ করা হয় তবে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে যাবে।

তিনি বলেছেন, হিসাবের বাইরে মৃত্যু হওয়া ৭০ ভাগই ইলিনয়েস, ম্যাসাচুসেটস, মিশিগান, নিউইয়র্ক এবং নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার্স ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনসনের (সিডিসি) শুক্রবারের হিসাব অনুযায়ী, দেশটিতে ৮৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

তবে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান এবং এক প্রতিবেদন বলছে, প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে ১ লাখ থেকে ১ লাখ ১০ হাজারের মতো মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. রাফায়েল ইরিজারি বলেছেন, কানেক্টিকাট, নর্থ ক্যারোলিনা এবং পেনসিলভানিয়ায় অনেক মৃত্যুর ঘটনাই অন্তর্ভূক্ত হয়নি।

ফলে হিসাবের বাইরেও অনেক মৃত্যু হয়েছে। এর আগে দেশটির শীর্ষ সংক্রামক বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফসিও একই ধরনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। গত মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মৃতের সংখ্যা সরকারি হিসাবের চেয়ে বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *