রেজাউল রহিম লালের বক্তব্য শুনলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রফিকুল ইসলাম সুইট : পাবনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল এর বক্তব্য শুনতে চাইলেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার বিকেলে পাবনা সরকারি এডওর্য়াড মাঠে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী, ব্যবসায়ী, চাকুরী জীবি, শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলছিলেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। সময় স্বল্পতার কারণে অনুষ্ঠান সংক্ষিপ্ত করছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সময় স্বল্পতার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেজাউল রহিম লাল এর বক্তব্য শুনতে চাইলেন। এ সময় লাল তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পাবনার ৫টি আসনই উপহার দেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন- এই পাবনা-বঙ্গবন্ধুর পাবনা, শহীদ মনসুর আলীর পাবনা। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী আপনি পাবনায় অনেক উন্নয়ন করেছেন। আগামী নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক সাংসদ নিয়ে সংসদে যাবেন তাই আগামী সরকারের সময়ে পাবনা সদরে বিষেশ উপহার দিবেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন- পাবনায় মন্ত্রী দেয়া হয়েছে- সে জেলার সভাপতি। এ সময় রেজাউল রহিম লাল এবং উপস্থিত জনতা বলেন- পাবনা সদরকে মুল্যায়ন করতে হবে এবং বিশেষ উপহার দিতে হবে। এ সময় উপস্থিত জনতা গোলাম ফারুক প্রিন্সকে মন্ত্রী বানানোর জন্য শ্লোগান দেয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রী হেসে উঠে সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষনা করেন।
পাবনা সরকারী এডওয়ার্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত এই নির্বাচনী জনসভায় পাবনা-১ আসনের আওয়ামীলীগ প্রার্থী অ্যাডঃ শামসুল হক টুকু, পাবনা-২ আসনের আওয়ামীলীগ প্রার্থী আহম্মেদ ফিরোজ কবির এবং পাবনা-৫ আসনের আওয়ামীলীগ প্রার্থী গোলাম ফারুক প্রিন্স, পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও পাবনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এবং পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল প্রধান মন্ত্রীর সাথে কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী পাবনার কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন বলেন- এবারের নির্বাচন গুরুত্বপুর্ণ। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আওয়ামী লীগ কে ক্ষমতায় আসবে হবে। সকল দলের অংশ গ্রহনে সুষ্টু নির্বাচন আমাদের কাম্য। ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্ম শত বার্ষিকী পালন করা হবে। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন- ধানের শীষ মানে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস আর মানুষ খুন। বিএনপিকে মানুষ চায় না। ৩০ ডিসেম্বর শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এবং সেখানে আওয়ামী লীগ জয়লাভ করে সরকার গঠন করবে বলেও আশাবাদ করেন প্রধানমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহবান জানান। পাবনা ৫টি আসনের নৌকার প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *