লিঙ্গভিত্তিক সমতা অর্জনে নারীর অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষমতায়ন জরুরি-এমপি প্রিন্স

মিজান তানজিল, পাবনা: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি বলেছেন, নারীশিক্ষা এবং তাদের মর্যাদা ও অধিকার নিশ্চিতে বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথ ধরেই সরকার কাজ করছে। নারীর উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর অবদান অনিস্বীকার্য । কারন বীরাঙ্গনাদের সামাজিক মর্যাদা দিয়ে তাদের পুনর্বাসন করেন জাতির পিতা।’ যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ পুনর্গঠনের পাশাপাশি নারীর কর্মসংস্থান ও ক্ষমতায়নের জন্য উদ্যোগ নেন বঙ্গবন্ধু।

রবিবার সকালে জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর পাবনার আয়োজনে জেলা পরিষদের রশিদ হলে “প্রজন্ম হোক সমতার, সকল নারীর অধিকার” এই প্রতিপাদ্য বিষয়ে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।তিনি বলেন,শেখ হাসিনা নারীর কল্যাণে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, স্বামী পরিত্যক্তা ভাতা, বিভিন্ন ধনের বৃত্তি এবং উপবৃত্তি প্রদান সহ সরকারের সামাজিক নিরাপত্তাবলয়ের বিভিন্ন কর্মসূচিও রয়েছে। এমপি প্রিন্স আরো বলেন, দেশের জন্য নারীর ক্ষমতায়ন ছাড়া ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-এসডিজি অর্জন সম্ভব নয়। লিঙ্গভিত্তিক সমতা অর্জনে নারীর অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষমতায়ন জরুরি। এজন্য সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল,পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ারুল হক,স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক আফরোজা আখতার,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিমা আক্তার,উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামুসন্নাহার রেখা প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপপরিচালকের কার্যালয়, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর পাবনার উপপরিচালক কানিজ আইরিন জাহান।

এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রাসেল আলী মাসুদ,অর্থ সম্পাদক হিরোক হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগ নেতা কামরুজ্জামান রকি, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সরদার স্বপন আহমেদ,ফিরোজ খানসহ উপপরিচালকের কার্যালয়, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর পাবনার সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী, প্রশিক্ষণ-প্রশিক্ষণার্থী ও বিভিন্ন জিও,এনজিও এর প্রতিনিধিবৃন্দ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *