শাটডাউনের আশঙ্কায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজারে ফেরিতে যাত্রীদের ভিড়

এফএনএস: লকডাউনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে গত শুক্রবারও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরিতে যাত্রী পারাপার হয়েছে। শাটডাউন ঘোষণার আশঙ্কায় যাত্রীদের ভিড় বেড়ে যায় ঘাটে। সড়কে চেকপোস্ট বসিয়েও আটকানো যাচ্ছিল না তাদের। গত শুক্রবার সকাল থেকে নৌরুটের ফেরিগুলোতে ঢাকা ও দক্ষিণবঙ্গগামী উভয়মুখী প্রচুর যাত্রীকে পার হতে দেখা যায়। একসঙ্গে পারাপার হয় পণ্যবাহী ও জরুরি যানবাহন। বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়াঘাটে সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহমেদ জানান, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বর্তমানে ১৪টি ফেরি সচল রয়েছে। লকডাউনের নিয়ম অনুযায়ী, শুধু পণ্যবাহী ও জরুরি যান পারাপারের কথা থাকলেও যাত্রীরা ঘাটে আসছেন। বিআইডব্লিউটিসি সুপার ভাইজার শাহাবুদ্দিন বলেন, যাত্রীদের জন্য ফেরিতে চাপ বেড়েছে। শিমুলিয়াঘাটে পারাপারের অপেক্ষা শতাধিক বড় গাড়ি রয়েছে। গত শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চার শতাধিক গাড়ি পার করা হয়েছে। মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের ইনচার্জ জাকির হোসেন বলেন, শিমুলিয়াঘাটের প্রবেশমুখে আজও (গত শুক্রবার) রয়েছে চেকপোস্ট। আমাদের পক্ষ থেকে যাত্রীদের ঘাটে আসা রোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। লকডাউনের নির্দেশনা মানার জন্য সবাইকে আহ্বান জানানো হচ্ছে। কিন্তু যাত্রীরা বিভিন্নভাবে ঘাটে এসে উপস্থিত হচ্ছেন। মূলত শাটডাউন ঘোষণার আশঙ্কায় মানুষের ভিড় বেড়েছে ঘাট এলাকায়। এ ছাড়া বাংলাবাজারঘাট থেকেও ফেরিতে করে শিমুলিয়াঘাটে আসছেন অনেক যাত্রী।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *