শান্তির সুযোগ দিন, মোদীকে ইমরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ‘শান্তির সুযোগ দিতে’ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। শনিবার রাজস্থানে এক সমাবেশে মোদী ইমরানকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, “যদি পাঠানপুত্র হন তাহলে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পুলওয়ামার হামলাকারীদের বিচারের মুখোমুখি করুন।” গতকাল এর জবাবে মোদীকে ‘শান্তির সুযোগ দেওয়ার’ আহ্বান জানিয়ে নয়া দিল্লি ইসলামাবাদকে ‘পদক্ষেপ নেওয়ার মতো গোয়েন্দা তথ্য’ সরবরাহ করলে তাৎক্ষণিকভাবে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন ইমরান। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ইমরান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তাকে শুভেচ্ছা জানাতে কল করেছিলেন মোদী। তখন তাদের মধ্যে যে কথাবার্তা হয়েছিল তা স্মরণ করে মোদী জানান, সম্মিলিতভাবে দারিদ্র্য ও নিরক্ষরতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন ইমরান এবং নিজেকে সত্য কথা বলা ও সেই অনুযায়ী চলা ‘পাঠানপুত্র’ বলে দাবি করেছিলেন। এই কথার সূত্র ধরেই ইমরানকে পুলওয়ামা হামলার ক্ষেত্রে তার দাবি অনুযায়ী কাজ করার আহ্বান জানান মোদী। বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, রোববার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ভারত যদি পদক্ষেপ নেওয়ার মতো গোয়েন্দা তথ্য আমাদের দেয় তাহলে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে পদক্ষেপ নিবো, এ প্রতিশ্রুতিতে অনড় আছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।” প্রধানমন্ত্রী মোদীর ‘শান্তিকে সুযোগ দেওয়া’ উচিত, ইমরান এমন মন্তব্য করেছেন বলেও বিবৃতিতে বলা হয়েছে। গত সপ্তাহেও ইমরান খান ভারতকে আশ্বস্ত করে বলেছিলেন, যদি নয়া দিল্লি ‘পদক্ষেপ নেওয়ার মতো গোয়েন্দা তথ্য’ শেয়ার করে তাহলে পুলওয়ামা হামলার দায়ীদের বিরুদ্ধে তিনি ব্যবস্থা নিবেন। পাশাপাশি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কোনো পদক্ষেপ নিলে জবাব দেওয়া হবে বলেও সতর্ক করেছিলেন। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ পুলওয়ামা হামলার দায় স্বীকার করেছে। এটিকে কারণ দেখিয়ে ইমরানের প্রস্তাবকে ‘খোঁড়া যুক্তি’ বলে অভিহিত করেছে ভারত। এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, “এটা সবাই জানে যে জইশ-ই-মোহাম্মদ এবং এর নেতা মাসুদ আজহার পাকিস্তান থেকে কার্যক্রম চালায়। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এসব প্রমাণইতো পাকিস্তানের জন্য যথেষ্ট।” পাঠানরা ইরান থেকে আসা একটি নৃগোষ্ঠী। প্রবল সম্মান ও আত্মসম্মানবোধের জন্য তাদের পরিচিতি আছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *