শিমুলিয়ায় ঢাকামুখী মানুষের ভিড়, শতভাগ মানা হচ্ছে নাস্বাস্থ্যবিধি

এফএনএস: শিমুলিয়া ঘাটে গতকাল সোমবারও ছিল ঢাকামুখী মানুষের ভিড়। সকাল থেকে লঞ্চ, ফেরি, বাস ও স্পিডবোটে করে নদী পার হয় লোকজন। গণপরিবহন চালু হওয়ায় বাসে করে যাত্রীরা ঢাকায় ফিরেছেন। লঞ্চ ও স্পিডবোট চালু হওয়ায় ফেরিতে সাধারণ যাত্রীদের ভিড় কমে। তবে, কোনও পরিবহনেই শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়নি বলে জানিয়েছেন যাত্রীরা।

স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে যাত্রা করতে পেরে অনেক যাত্রী সন্তুষ্ট। তবে, অনেক যাত্রী বলছেন, শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করা হচ্ছে না। লঞ্চে বেশ ভিড়। লঞ্চ থেকে নামার সময় যাত্রীরা গাদাগাদি করে ঘাটে নামছেন। আবার স্পিডবোটে আসন বিন্যাসের কারণে শারীরিক দূরত্ব রক্ষা করা মোটেও সম্ভব নয়। প্রতি স্পিডবোটে ২০-৩০ যাত্রী নেওয়া হচ্ছে।

স্পিডবোট ইজারাদারের প্রতিনিধি মামুন পাঠান বলেন, প্রতি বোটে যাত্রী উঠানোর আগে জীবাণুনাশক ব্যবহার করা হচ্ছে। আর স্পিডবোটে সক্ষমতার চেয়ে কম যাত্রী উঠানো হচ্ছে। বাসেও জীবাণুনাশক ছিটাতে দেখা গেছে। তবে বাসে উঠতে লাইনে দাঁড়াতে গিয়ে যাত্রীরা দূরত্ব রক্ষা করতে পারছেন না।

বাসগুলোতে সিটের বিপরীতে কম যাত্রী নেওয়া হচ্ছে। ইলিশ পরিবহনের শিমুলিয়া ঘাটের ইনচার্জ আরিফ হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে কম যাত্রী নিয়ে বাস চালাচ্ছি। বাস ভাড়া বাড়ানোর পরও প্রতি ট্রিপে আমাদের দেড় হাজার টাকা ক্ষতি হয়। তারপরও এই সময়ে এভাবেই বাস চালাবো। এদিকে, মাওয়া ট্রাফিক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হিলাল উদ্দিন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ফেরির মোট ট্রিপ হয়েছে ৬৭টি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *