শুধু ২৩৪ কোটি টাকার বাড়ি-গাড়ির মালিক আমির!

বিনোদন: অভিনয়দক্ষতা আর কঠোর পরিশ্রমে ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ তকমা জুটেছে সুপারস্টার আমির খানের নামের সঙ্গে। বলিউডে প্রথম ১০০ কোটি আয় করা সিনেমার মালিক এই ‘গজিনি’ তারকা। আমির খানের ‘থ্রি ইডিয়টস’, ‘পিকে’ দেখে যেমন মানুষ হেসেছে; তেমনি রোমাঞ্চিত হয়েছে ‘ধুম থ্রি’, ‘দঙ্গল’ দেখে। সিনেপর্দার ‘পারফেকশনিস্ট’ তারকা ব্যক্তিজীবনে কতটা পারফেক্ট আর বিলাসী? সেই হিসাব কষেছে বলিউডভিত্তিক অনলাইন পোর্টাল বলিউড বাবল। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, আমির খানের মালিকানায় থাকা বিলাসবহুল চার বাড়ি আর পাঁচ গাড়ির খবর। প্রথমে নজর রাখা যাক গাড়িতে। এই সুপারস্টারের কাছে আছে বিএমডব্লিউ ৭ সিরিজের একটি গাড়ি; যেটির বাজারমূল্য প্রায় ১.২ কোটি রুপি। প্রাক্তন স্ত্রী কিরণ রাওয়ের পক্ষ থেকে এই বিএমডব্লিউ উপহার পেয়েছিলেন তিনি। আছে একটি রেঞ্জ রোভার, যেটির মূল্য ১.৭৪ কোটি রুপি।
তবে আমিরের দখলে থাকা সবচেয়ে দামি গাড়ি মার্সিডিজ বেঞ্জ ৬০০; কাস্টমাইজড এই গাড়ির দাম ১১.৬ কোটি রুপি।এখানেই শেষ নয়, আমিরের দখলে আছে ৩.১০ কোটি রুপির বেন্টলে কন্টিনেন্টাল ফ্লাইং স্পার; ৪.৬ কোটি রুপির রোলস রয়েস কুপ। সেই হিসেবে আমির খানের কাছে আছে মোট পাঁচটি বিলাসবহুল গাড়ি, যেগুলোর মোট বাজারমূল্য ২২.২৪ কোটি রুপি, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫ কোটি টাকার বেশি। গাড়ি তো গেল, এবার আমির খানের বাড়ির খোঁজ নেওয়া যাক। মুম্বাইয়ের দক্ষিণ-পূর্বের শহর পাঁচগনিতে রয়েছে বাড়ি এবং বাংলো; দুই একরজুড়ে এই সম্পত্তির বাজারমূল্য ১৫ কোটি রুপি। ভারতের উত্তরপ্রদেশের হারদোই জেলার শাহাবাদে ২২টি বাড়ির মালিক আমির খান, যেগুলোর মোট দাম ৩০ কোটি রুপি। তাঁর চাচারা মালিক ছিলেন এই বাড়িগুলোর।
মুম্বাইয়ের পালি হিল এলাকায় আমির খানের আছে দুটি অ্যাপার্টমেন্ট। পাঁচ হাজার বর্গফুটের দুটি তলার বর্তমান বাজারমূল্য ৬৫ কোটি রুপি। এ ছাড়া দেশের বাইরে আরও একটি বাড়ি আছে আমিরের। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় এলাকা বেভারলি হিলসের একটি বাড়ির মালিকানা তাঁর দখলে; যেটির বাজার মূল্য ৭৫ কোটি রুপি। সব মিলিয়ে চার বাড়ির মালিকানা পেতে আমিরের গুনতে হয়েছে ১৮৫ কোটি রুপি; যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২০৯ কোটি টাকার বেশি। বলিউড সুপারস্টার আমির খানের শুধু বাড়ি-গাড়ি মিলিয়ে সর্বমোট সম্পত্তি আছে ২৩৪ কোটি টাকার।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *