শেষ হলো ইরানের বিশাল সামরিক মহড়া; এ যেন সত্যিকারের নৌযুদ্ধ

ডেস্ক: পারস্য উপসাগরে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সামরিক বাহিনীর তিনদিনব্যাপী মহড়া গতকাল শনিবার শেষ হয়েছে। মহড়ার শেষ দিনে বিভিন্ন ধরণের সামরিক নৌযানের উপস্থিতিতে এক বিস্ময়কর দৃশ্য তৈরি হয়েছিল। এ যেন এক সত্যিকারের নৌযুদ্ধ। খার্ক কমান্ড শিপের সামনে দিয়ে একসঙ্গে মার্চ করে গেছে যুদ্ধজাহাজ, ডেস্ট্রয়ার, মিসাইল লাঞ্চার, লজিস্টিক জাহাজ এবং বিভিন্ন ক্লাসের সাবমেরিন।

শনিবার যেসব সাবমেরিন মহড়ায় অংশ নিয়েছে সেগুলোর কয়েকটি হলো তারিক, গাদির ও ফতেহ। আর এ সময় আকাশে উড়ছিল ইরানের বিমান বাহিনীর ক্ষিপ্রগতির এক ঝাঁক যুদ্ধবিমান। সেনাবাহিনী প্রধানসহ শীর্ষ কর্মকর্তারা এ সময় সালাম গ্রহণ করেন।

সমাপনী অনুষ্ঠানে গতকাল শনিবার সেনাবাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল সাইয়্যেদ আবদুর রহিম মুসাভিসহ শীর্ষস্থানীয় সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তারা খুব কাছ থেকে নৌযান ও যুদ্ধবিমানের নানা তৎপরতা প্রত্যক্ষ করেছেন। গত বৃহস্পতিবার থেকে কৌশলগত হরমুজ প্রণালীর পশ্চিমে বিশাল এলাকাজুড়ে মহড়া শুরু করে ইরানের সামরিক বাহিনী। এই মহড়ায় প্রায় সব ধরণের যুদ্ধ সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়েছে। নানা ধরণের ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন ছিল নৌমহড়ার বাড়তি আকর্ষণ।

সব ইউনিটের মধ্যে সমন্বয় সাধন করে সাগরে কীভাবে শত্রুকে নাস্তানাবুদ করতে হয় তার চিত্র ফুটে উঠেছে এবারের মহড়ায়। সামমেরিন থেকেও ছোঁড়া হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্র।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *